আজ মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকার সমর্থক বুদ্ধিজীবীরা চুপ কেন?

ফজলুল বারী  

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়ে মানবাধিকারের খেতাব নিয়ে মুসলিম প্রধান বাংলাদেশে এখন রোহিঙ্গা একটি গালির নাম! মিডিয়ায় প্রতিদিন বিষয়টিকে এমনভাবে তুলে ধরা হচ্ছে যে আগামীতে মানুষ এদের পথেঘাটে পেলে পিটিয়ে মারবে। এই ভয়ে রোহিঙ্গারা দা-ছুরি বানাচ্ছে-সংগ্রহ করছে! সব মিলিয়ে এই মুহূর্তের পৃথিবীর বৃহত্তম শরণার্থী গোষ্ঠীকে নিয়ে বাংলাদেশে সৃষ্টি হচ্ছে একটি বিস্ফোরন্মুখ পরিস্থিতি।

রোহিঙ্গারা পরিচয় গোপন করে পাসপোর্ট নিচ্ছে, এই নিচ্ছে-সেই নিচ্ছে! অথচ রোহিঙ্গা যারা পৃথিবীর যত দেশে আছে সে সব দেশেতো তাদের বিরুদ্ধে এসব কোন অভিযোগ নেই অথবা সে সুযোগও নেই। সে সব দেশের কেউতো ইয়াবার নামও জানেনা। আপনার লোকজন ইয়াবা খায় বলেইতো এখানে এর বাজার আছে।

নিজস্ব পুলিশসহ পুরো পাসপোর্ট ব্যবস্থাটি দুর্নীতিগ্রস্ত বলেইতো বাংলাদেশে যে কারও পক্ষে পাসপোর্ট পাওয়া সম্ভব। না ওই পাসপোর্ট অফিসারদেরও সবাই রোহিঙ্গা? এতো রোহিঙ্গার হাতে যে অবৈধভাবে মোবাইল ফোন চলে গেলো এরজন্যে দুর্নীতিবাজ একজনকেও কি ধরেছেন? না তাদের সবাই আপনার মামা-খালু লাগে? রোগের কারণ নির্মূল না করে লক্ষণে মলম লাগাবেন আর কতো?

বারবার একটা কথা বলি, তা হলো- রোহিঙ্গাদের একজনকেও কিন্তু মিয়ানমার ফেরত নেবেনা। আটকে পড়া পাকিস্তানিদের একজনকেও পাকিস্তান ফেরত নেয়নি। ভারত-চীন চায় না রোহিঙ্গারা আরাকানে ফেরত যাক। কারণ এদের ধর্মীয় পরিচয়ের পাশাপাশি রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারত-চীন আপনার বন্ধু না। দেশ দুটি আরাকানে ব্যবসায় বিনিয়োগ করতে চায়। রোহিঙ্গারা আরাকানে ফেরত গেলে এটা সম্ভব নয়।

রোহিঙ্গারা বাংলাদেশেও থাকতে চায় না। বাংলাদেশের মানুষ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অভিবাসনের জন্যে যায়। ভারতে যায়। কিন্তু কোন একজন ভারতীয়ও অভিবাসনের জন্যে বাংলাদেশে আসেনা। বাংলাদেশ থেকে বেরিয়ে যেতে যে কারও পাসপোর্ট লাগে। কিন্তু আপনি তাদের যেতেও দেবেনা, রাখবেনওনা, মিয়ানমারও নেবেনা তাহলে কী করবেন? মেরেকুটে বঙ্গোপসাগরে ভাসিয়ে দিতেওতো পারবেননা। তাহলে কী করবেন সেটা সাফ-সাফ বলুন।

বাংলাদেশে একটা ভুল প্রচার আছে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে বিদেশে গিয়ে বাংলাদেশের বদনাম বাড়াচ্ছে। কিন্তু আসল সত্য হচ্ছে ইউরোপের দেশগুলোতে ঢোকার আগে রোহিঙ্গারা এসব পাসপোর্ট ফেলে দেয়। কারণ রোহিঙ্গা পরিচয়ে সে মানবিক আশ্রয় পায়। হাতে বাংলাদেশের পাসপোর্ট থাকলে আশ্রয় পায়না। বাংলাদেশের পাসপোর্ট হাতে আশ্রয় পাওয়া সম্ভব হলে দুনিয়ার বিভিন্ন দেশের অবৈধ বাংলাদেশিরাও চটজলদি আশ্রয় পেয়ে যেতো।

বিদেশে আশ্রয় প্রত্যাশী বাংলাদেশিরা অর্থনৈতিক শরণার্থী। রোহিঙ্গাদের মতো জেনুইন রাষ্ট্রহীন শরণার্থী নয়। সে কারণে রোহিঙ্গারা উন্নত বিশ্বে পৌঁছতে পারলে প্রটেকশন-আশ্রয় পায়। তাদের মিয়ানমারের বিমানে তুলে ফেরত পাঠানো যায় না। কারণ মিয়ানমার তাদের স্বীকার করেনা।

রোহিঙ্গাদের কোন দেশ নেই রাষ্ট্র নেই। বাংলাদেশিদের দেশ-রাষ্ট্র আছে।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ অবিস্মরণীয় মানবিক দায়িত্ব পালন করেছে। পৃথিবীর বৃহত্তম শরণার্থী সমস্যা বাংলাদেশ দক্ষতার সঙ্গে সামাল দিচ্ছে যেখানে আজ পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের ত্রাণ বিতরণ নিয়ে কোন দুর্নীতির অভিযোগ উঠেনি! এটা ভাবা যায়? কিন্তু এখন এই ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশ যেন দিকভ্রান্ত!

সরকার সমর্থক এতো এতো বাঘা বাঘা বুদ্ধিজীবী দেশে! তাদের সঙ্গেও কি বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসা যায়না? না মান-সম্মানের ভয়ে নানাকিছুতে মুখ বন্ধ করে থাকা-চলার সরকার সমর্থক বুদ্ধিজীবীরাও এ ইস্যুতে কোন স্বাধীন মতামত দিতে রাজি না?

ফজলুল বারী, প্রবাসী সাংবাদিক

মুক্তমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। sylhettoday24.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে যার মিল আছে এমন সিদ্ধান্তে আসার কোন যৌক্তিকতা সর্বক্ষেত্রে নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে sylhettoday24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় গ্রহণ করে না।

আপনার মন্তব্য

লেখক তালিকা অঞ্জন আচার্য অসীম চক্রবর্তী আজম খান ১০ আজমিনা আফরিন তোড়া ১০ আফসানা বেগম আবু এম ইউসুফ আবু সাঈদ আহমেদ আব্দুল করিম কিম ২০ আব্দুল্লাহ আল নোমান আব্দুল্লাহ হারুন জুয়েল আমিনা আইরিন আরশাদ খান আরিফ জেবতিক ১৩ আরিফ রহমান ১৪ আরিফুর রহমান আলমগীর নিষাদ আলমগীর শাহরিয়ার ৪০ আশরাফ মাহমুদ আশিক শাওন ইমতিয়াজ মাহমুদ ৫৩ ইয়ামেন এম হক এখলাসুর রহমান ১৯ এনামুল হক এনাম ২৫ এমদাদুল হক তুহিন ১৯ এস এম নাদিম মাহমুদ ২১ ওমর ফারুক লুক্স কবির য়াহমদ ৩১ কাজল দাস ১০ কাজী মাহবুব হাসান খুরশীদ শাম্মী ১২ গোঁসাই পাহ্‌লভী ১৪ চিররঞ্জন সরকার ৩৫ জফির সেতু জহিরুল হক বাপি ২৮ জহিরুল হক মজুমদার জান্নাতুল মাওয়া জাহিদ নেওয়াজ খান জুয়েল রাজ ৭৫ ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন ড. কাবেরী গায়েন ২২ ড. শাখাওয়াৎ নয়ন ডা. সাঈদ এনাম ডোরা প্রেন্টিস তপু সৌমেন তসলিমা নাসরিন তানবীরা তালুকদার দিব্যেন্দু দ্বীপ দেব দুলাল গুহ দেব প্রসাদ দেবু দেবজ্যোতি দেবু ২৬ নিখিল নীল পাপলু বাঙ্গালী পুলক ঘটক ফকির ইলিয়াস ২৪ ফজলুল বারী ৬২ ফড়িং ক্যামেলিয়া ফরিদ আহমেদ ৩৩ ফারজানা কবীর খান স্নিগ্ধা বদরুল আলম বন্যা আহমেদ বিজন সরকার বিপ্লব কর্মকার ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ১৬ ভায়লেট হালদার মারজিয়া প্রভা মাসকাওয়াথ আহসান ১১৪ মাসুদ পারভেজ মাহমুদুল হক মুন্সী মিলন ফারাবী মুনীর উদ্দীন শামীম ১০ মুহম্মদ জাফর ইকবাল ১১৮ মো. মাহমুদুর রহমান মো. সাখাওয়াত হোসেন মোছাদ্দিক উজ্জ্বল মোনাজ হক রণেশ মৈত্র ১৩১ রতন কুমার সমাদ্দার রহিম আব্দুর রহিম ১৭ রাজেশ পাল ১৯ রুমী আহমেদ রেজা ঘটক ৩২ লীনা পারভীন শওগাত আলী সাগর শাখাওয়াত লিটন শামান সাত্ত্বিক শামীম সাঈদ শারমিন শামস্ ১৪ শাশ্বতী বিপ্লব শিতাংশু গুহ শিবলী নোমান শুভাশিস ব্যানার্জি শুভ ২৪ শেখ মো. নাজমুল হাসান ২১ শেখ হাসিনা শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী সঙ্গীতা ইমাম সঙ্গীতা ইয়াসমিন ১৬ সহুল আহমদ সাইফুর মিশু সাকিল আহমদ অরণ্য সাব্বির খান ২৮

ফেসবুক পেইজ