আজ বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ভিন্নমত প্রসঙ্গে

আবু এম ইউসুফ  

কেউ কেউ 'ভিন্নমত'এর প্রতি সহিষ্ণুতা ও শ্রদ্ধা প্রদর্শনের জন্য আজকাল বেশ জোরে সোরে সোচ্চার হচ্ছেন। সেক্ষেত্রে ‘ভিন্নমত’কে ভিন্ন "মতাদর্শ" বলেও উল্লেখ করছেন। কিন্তু, আমার বক্তব্য হচ্ছে সকল প্রকারের ‘ভিন্নমত’ কী "আদর্শ" হিসেবে এই সভ্য সমাজে গণ্য হতে পারে?

এই ধরুন হিন্দুদের "বর্ণপ্রথা" কিংবা "সতীদাহ' প্রথা। অথবা আজ ইসলামী জেহাদি "আদর্শ"এর নামে যেভাবে জাতি-ধর্ম-মত নির্বিশেষে সাধারণ নিরীহ ও নিরস্ত্র নারী, পুরুষ ও শিশুসহ নির্বিচারে জঙ্গি আক্রমণ করে হত্যা করা হচ্ছে; অথবা যেভাবে যে বিশ্বাসের বশবর্তী হয়ে ভিন্নমত এবং ভিন্ন ধর্মবিশ্বাসীদের টার্গেট করে হত্যা করা হচ্ছে সেসব ভিন্ন জেহাদি মতাদর্শকেও কী সহিষ্ণুতা ও শ্রদ্ধা দিয়ে '"সামাজিক বৈচিত্র্য' হিসেবে গ্রহণ করে নিতে হবে।

অথবা ধরুন ফ্যাসিবাদের কথা। উগ্র জাতীয়তাবাদ অথবা ধর্মীয় সাম্প্রদায়িকতাকেও একটি "মতাদর্শ" হিসেবে সমাজে সহিষ্ণুতা অথবা শ্রদ্ধার সাথে জায়গা করে দিতে হবে?

একথা আমাদের মনে রাখতে হবে যে, মানবিকতা, বাঙ্গালী জাতীয়তা, ধর্মীয় সহিষ্ণুতা, সম্প্রীতি ও অসাম্প্রদায়িকতা, গণতন্ত্র, সামাজিক সাম্য এবং ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হবে এবং রক্ষা পাবে- সেরকম একটি দেশ গঠনের জন্য ১৯৭১ সনে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়েছিল। এবং সেটাই ছিল মুক্তিযুদ্ধের "আদর্শ" এবং "চেতনা"। এ নিয়ে কোন বিচ্যুতি, বিতর্ক চলতে পারে না।

পাকিস্তানী ভাবাদর্শ, যা কি-না ছিল ধর্মীয় সাম্প্রদায়িকতা, সামাজিক বৈষম্য এবং সামরিক স্বৈরশাসন -সেসব প্রত্যাখ্যান করে নতুন দেশ, নতুন সমাজ গঠনের জন্যই এদেশের জনমানুষ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে চরম আত্মত্যাগ স্বীকার করেছিল। সুতরাং তার বিপরীতে যে কোন মতবাদ'কে স্বাধীন বাংলাদেশে আমরা কোন মতাদর্শের ছকে ফেলে ‘ভিন্নমত’ নাম দিয়ে সহিষ্ণুতা অথবা শ্রদ্ধা দেখানোর কথা ভাবতে পারি না। যদি ভাবি, তবে সেটা হবে ৩০ লক্ষ শহীদের আত্মা এবং লক্ষ নির্যাতিত মা-বোনের সম্ভ্রমের সাথে চরম বেঈমানি।

আমরা ১৯৭৫'এর ফ্যাসিবাদী হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে দেশের শাসন দর্শনের পরিবর্তন হতে দেখেছি। ২০০৪ সনের আগস্টে হাওয়া ভবন ও একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীদের শাসনের ফ্যাসিবাদী আক্রমণ হতে দেখেছি। আবার স্বাধীনতার ৪৩ বছর পরে এসে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীদের বিচার পুনরায় শুরু হতে দেখেছি। দেশে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের আদর্শ এবং তাদের বিরোধীদের মধ্যে দ্বন্দ্বের প্রকার এবং প্রকরণ কোন গণতান্ত্রিক রীতি নীতি মেনে চলেনি, চলছে না। সুতরাং 'ভিন্নমত'টি কী এটা স্পষ্ট জানতে হবে, বুঝতে হবে, বিচার-বিশ্লেষণ করে দেখতে হবে।

আমাদের দেশের স্বাধীনতার প্রাণ পুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৯৭৫ সনে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল। তারপর, ফ্যাসিবাদী ও স্বৈরশাসনের মাধ্যমে দেশে যুদ্ধাপরাধীদের পুনর্বাসন এবং ধর্মীয় সাম্প্রদায়িকতা ও অন্ধত্ব সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে সম্প্রসারিত হতে দেখেছি। হত্যা, ক্যু এবং ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দেশে গণতান্ত্রিক মতাদর্শে বিশ্বাসীদের হত্যা করে নিঃশেষ করে দেয়ার সকল অপকৌশল চালাতে দেখেছি।

বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সদস্যদের হত্যা করে দেশের শাসন পরিবর্তন করে ফেলার পুরনো এসব ষড়যন্ত্র কী বন্ধ আছে? কেন দেশে এই দুই বছর আগেই লাগাতার হরতাল-অবরোধের নামে দেশের সাধারণ মানুষদের পুড়িয়ে হত্যা করার মচ্ছব শুরু হয়েছিল? কারা করছিল এসব? সাঈদীকে চাঁদে কারা রপ্তানি করেছিলেন? 'ভিন্নমত'এর আদর্শবাদীরা?

সুতরাং আপনি বন্ধু ‘ভিন্নমত’ বলতে কী বোঝেন? কারা "ভিন্নমত'-এর অনুসারী দয়া করে, সেটা আগে ভাল করে বুঝে নিন। কেননা, আপনি কিন্তু ওই ‘ভিন্নমত’কে ‘ভিন্নমত’ অভিধায় চিহ্নিত করে আপনার সহিষ্ণুতা ও শ্রদ্ধার মাধ্যমে দেশে ও সমাজে স্থান করে দেয়ার কথা বলছেন।

আবু এম ইউসুফ, প্রকৌশলী, লেখক, সম্পাদক, প্রকাশক

মুক্তমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। sylhettoday24.com-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে যার মিল আছে এমন সিদ্ধান্তে আসার কোন যৌক্তিকতা সর্বক্ষেত্রে নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে sylhettoday24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় গ্রহণ করে না।

আপনার মন্তব্য

লেখক তালিকা অঞ্জন আচার্য অসীম চক্রবর্তী আজম খান ১০ আজমিনা আফরিন তোড়া আফসানা বেগম আবু এম ইউসুফ আবু সাঈদ আহমেদ আব্দুল করিম কিম ২০ আব্দুল্লাহ আল নোমান আব্দুল্লাহ হারুন জুয়েল আমিনা আইরিন আরশাদ খান আরিফ জেবতিক ১২ আরিফ রহমান ১৪ আরিফুর রহমান আলমগীর নিষাদ আলমগীর শাহরিয়ার ৩৯ আশরাফ মাহমুদ আশিক শাওন ইমতিয়াজ মাহমুদ ৫০ ইয়ামেন এম হক এখলাসুর রহমান ১৯ এনামুল হক এনাম ২৫ এমদাদুল হক তুহিন ১৯ এস এম নাদিম মাহমুদ ১৮ ওমর ফারুক লুক্স কবির য়াহমদ ৩১ কাজল দাস ১০ কাজী মাহবুব হাসান খুরশীদ শাম্মী ১১ গোঁসাই পাহ্‌লভী ১৪ চিররঞ্জন সরকার ৩৫ জফির সেতু জহিরুল হক বাপি ২৮ জহিরুল হক মজুমদার জান্নাতুল মাওয়া জাহিদ নেওয়াজ খান জুয়েল রাজ ৭৪ ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন ড. কাবেরী গায়েন ২২ ড. শাখাওয়াৎ নয়ন ডা. সাঈদ এনাম ডোরা প্রেন্টিস তপু সৌমেন তসলিমা নাসরিন তানবীরা তালুকদার দিব্যেন্দু দ্বীপ দেব দুলাল গুহ দেব প্রসাদ দেবু দেবজ্যোতি দেবু ২৬ নিখিল নীল পাপলু বাঙ্গালী পুলক ঘটক ফকির ইলিয়াস ২৪ ফজলুল বারী ৬০ ফড়িং ক্যামেলিয়া ফরিদ আহমেদ ৩২ ফারজানা কবীর খান স্নিগ্ধা বদরুল আলম বন্যা আহমেদ বিজন সরকার বিপ্লব কর্মকার ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ১৫ ভায়লেট হালদার মারজিয়া প্রভা মাসকাওয়াথ আহসান ১০২ মাসুদ পারভেজ মাহমুদুল হক মুন্সী মিলন ফারাবী মুনীর উদ্দীন শামীম ১০ মুহম্মদ জাফর ইকবাল ১১২ মো. মাহমুদুর রহমান মো. সাখাওয়াত হোসেন মোছাদ্দিক উজ্জ্বল মোনাজ হক রণেশ মৈত্র ১০৮ রতন কুমার সমাদ্দার রহিম আব্দুর রহিম ১৬ রাজেশ পাল ১৯ রুমী আহমেদ রেজা ঘটক ৩২ লীনা পারভীন শওগাত আলী সাগর শাখাওয়াত লিটন শামান সাত্ত্বিক শামীম সাঈদ শারমিন শামস্ ১৪ শাশ্বতী বিপ্লব শিতাংশু গুহ শিবলী নোমান শুভাশিস ব্যানার্জি শুভ ২৪ শেখ মো. নাজমুল হাসান ২১ শেখ হাসিনা শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী সঙ্গীতা ইমাম সঙ্গীতা ইয়াসমিন ১৬ সহুল আহমদ সাইফুর মিশু সাকিল আহমদ অরণ্য সাব্বির খান ২৮

ফেসবুক পেইজ