COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

123

Confirmed Cases

12

Deaths

33

Recovered

1,339,976

Cases

74,412

Deaths

277,855

Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

সিলেটটুডে প্রতিবেদন

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৪ ০০:১১

আরিফের পাশে নেই বিএনপি!

সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় আত্মসমর্পনের পর কারাগারে যাওয়া আরিফুল হকের পাশে নেই তার দল বিএনপি

সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় আত্মসমর্পনে পর কারাগারে যাওয়া আরিফুল হকের পাশে নেই তার দল বিএনপি, যিনি কিনা বছর খানেক আগেই সিসিক নির্বাচনে দলকে এনে দিয়েছিলেন বিপুল বিজয়।  সম্পূরক চার্জশিটে নাম আসার পর ধারনা করা হয়েছিলো বিএনপি থেকে আসবে  তীব্র প্রতিক্রিয়া । কিন্তু দায়সারা প্রতিবাদ ছাড়া এই বিপদে দলকে পাশে পাচ্ছেন না আরিফ । আত্মগোপনে থেকে চার্জশিট থেকে নাম প্রত্যাহারের জন্য আন্দোলন করার অনেক চেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয়ে অবশেষে আত্মসমর্পণ করেন এ নেতা  । এমনকি ডাঃ শাহরিয়ার আটক হলেও অর্ধ দিবস হরতাল ডেকেছিল বিএনপি কিন্তু আরিফুল হকের জন্য তাও করছেনা তারা!

কেন এই নিরবতা? হঠাৎ করেই আরিফুল হক বিএনপির কাছে এমন ব্রাত্য হবার কারণ কি? খবর নিয়ে জানা গেছে যার পেছনে রয়েছে ৪/৫ টি কারন । প্রথমত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী হবার সময় দলের ভেতর শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়েন তিনি । তার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছিলেন দলের অপর তিন নেতা । শেষ মুহুর্তে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নির্দেশে আরিফকে একক প্রার্থী হিসেবে মেনে নেন বিদ্রোহী নেতারা । সেসময় মেনে নিলেও আরিফের মেয়র হয়ে ক্ষমতায় আসা মন থেকে মেনে নেন নি তারা । ধারনা করা যায় আরিফের বিপদে স্বাভাবিক কারনেই শক্ত ভূমিকা নিতে বিএনপিকে দ্বিধাগ্রস্থ করে এসব বিরোধ । নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর সমর্থকদের সাথে শুরু থেকে চলা বিরোধও এতে জুগিয়েছে জ্বালানি । এরমধ্যে মেয়র হবার পরই নিজের ঘনিষ্ট ও সাইফুরপন্থী নেতা কোয়েস লোদীর সাথে প্রকাশ্যে ঝামেলায় জড়িয়ে নতুন করে বিপাকে পড়েন আরিফ। নিজ গ্রুপেরই একটি অংশের সমর্থন হারান তিনি। 

এদিকে কিছুদিন আগে ঘোষিত হয় বিএনপির মহানগর কমিটি। সেই কমিটিতে স্থান হয়নি নিবেদিত প্রাণ অনেক নেতার । অভিযোগ উঠে আরিফই এমন একপেশে কমিটি করতে পেছন থেকে কলকাঠি নেড়েছেন! পদবঞ্চিত ক্ষুব্ধ নেতারা তার পক্ষে দাঁড়াতে উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন । এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করা শর্তে এক বিএনপি নেতা বলেন- ‘ খাঁটি নেতাকর্মীরে বাদ দিয়ে কমিটি বানাইলা, এবলা লউক্কা ঠেলার নাম বাবাজি’ ।

এছাড়াও গত জোট আমলে লাগামহীন দুর্নীতির কারনে বিএনপির অনেকে আরিফের উপর আগে থেকেই ক্ষুব্দ। সব মিলিয়ে হঠাৎ করেই সমধুর সময়টা বিষময় হয়ে উঠেছে আরিফুল হক চৌধুরীর জন্য । এ ফাঁদ কাটিয়ে আরিফ কি আবার ফিরতে পারবেন রাজনৈতিক দাপট নিয়ে? বড় প্রশ্ন এখন এটাই । 

আপনার মন্তব্য

আলোচিত