Sylhet Today 24 PRINT

লন্ডনের বাংলা পত্রিকা ‘জনমত’ ছাড়লেন নবাব উদ্দিন

সিলেটটুডে ডেস্ক |  ০৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

লন্ডন থেকে প্রকাশিত সবচেয়ে প্রাচীন বাংলা পত্রিকা সাপ্তাহিক জনমতের সম্পাদকের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন নবাব উদ্দিন। তিনি ৩০ বছর ধরে জনমতের সঙ্গে ছিলেন এবং ২২ বছর পালন করেছেন জনমতের সম্পাদকের দায়িত্ব।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) পূর্ব লন্ডনের একটি হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জনমত সম্পাদক নবাব উদ্দিন বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানের সমাপনী বক্তব্যে জনমত পত্রিকার সঙ্গে তার ৩০ বছরের প্রাতিষ্ঠানিক সম্পর্ক চুকিয়ে দেয়ার ঘোষণা দেন।

নবাব উদ্দিনের বাংলা মিডিয়ায় কর্মময় জীবন সম্পর্কে ৭১জন লেখকের লেখা সাংবাদিক সাঈম চৌধুরী সম্পাদিত বই দীপ্ত পথচলা’রসহ নবাব উদ্দিনের প্রবন্ধ নিবন্ধ বই যেতে যেতে পথে এবং অ্যা রেসিষ্ট মার্ডার অব আলতাব আলী বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন লেখক ও সাংবাদিক আব্দুল গাফফার চৌধুরী ও কমিউনিটির বিভিন্ন সেক্টরের ২১ জন সফল মানুষ।

সাংবাদিক সাঈম চৌধুরীর পরিচালনায় প্রকাশনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, প্রখ্যাত লেখক ও সাংবাদিক আব্দুল গাফফার চৌধুরী, বেসরকারি দাতব্য সংস্থা আপাসেনের প্রধান নির্বাহী মাহমুদ হাসান, ব্যবসায়ী ইকবাল আহমেদ ওবিই, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরী, চ্যানেল এস টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা মাহী ফেরদৌস জলীল।

প্রখ্যাত লেখক ও সাংবাদিক আব্দুল গাফফার চৌধুরী বলেছেন, ‘পৃথিবীতে অনেক নবাব রয়েছে, কিন্তু আমাদের নবাব হচ্ছেন জনগণের নবাব! সে জীবনে যা করতে চেয়েছে তাই করেছে। এক জীবনে নাটক, খেলাধুলা, জনমতের মতো পত্রিকার সম্পাদনা, চ্যারিটির কাজ, বাচ্চাদের মানুষ করা সবই সে সফলতার সাথে করেছে।’

তিনি বলেন, ‘নবাব উদ্দিন জনমত পত্রিকায় স্বাধীনভাবে লেখার সুযোগ করে দিয়েছিলেন আমাকে। তিনি না থাকলে জনমতে আমার লেখা হবে কি না জানি না।’

মাহমুদ হাসান বলেন, নবাব উদ্দিনের কর্মময় জীবন নবাবকে বাঁচিয়ে রাখবে দীর্ঘদিন। নবাব উদ্দিন কিভাবে এই ৩০ বছর জনমতকে বাঁচিয়ে রেখেছেন সেটা আমি দেখেছি, এক সময় জনমত পত্রিকার অফিস ব্যাংক লোনের জন্য চলে গেলে সে তার বাসা থেকে পত্রিকা প্রকাশ করতো। তার স্ত্রী গর্ভবতী অবস্থায় জনমত টাইপ করতেন। এভাবে সংকট কাটিয়ে জনমত আজকে শীর্ষ পত্রিকা।

লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি ও সাপ্তাহিক পত্রিকার সম্পাদক এমদাদুল হক চৌধুরী বলেন, নবাব উদ্দিন মানুষের কতো কাছাকাছি সেটা আজকের অনুষ্ঠানের উপস্থিতিই বলে দেয়। একজন ব্যক্তির ডাকে এতো মানুষের উপস্থিতি বিরল।

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন ওবিই বলেন, ‘নবাব ভাই আমার কাছে একজন স্টার। তার মতো একজন ভালো বন্ধু এবং মধ্যস্থতাকারী পাওয়া আসলেই দুষ্কর।’

চ্যানেল এস টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা মাহী ফেরদৌস জলীল বলেন, ‘নবাব উদ্দিন হচ্ছেন বিলেতের নবাব। তিনি যা করেছেন তা এই কমিউনিটির জন্য, বাংলা সংস্কৃতিকে ভালোবেসে করেছেন।’

অনুষ্ঠানের সমাপনী বক্তব্যে নবাব উদ্দিন বলেন, মুক্তিযুদ্ধের আগে জন্ম নেয়া জনমতের যে আদর্শ ছিলো মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি হিসাবে কাজ করার, সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব নেয়ার পর ২২ বছর সেই লক্ষ্যেই কাজ করেছি।

তিনি বলেন, ‘গত ২২ বছর সম্পাদকের জীবন সহজ ছিল না। অনেক মামলা, হামলা, হুমকি মোকাবেলা করে কমিউনিটির স্বার্থকে প্রাধান্য দেয়ায় জনমত সারা ব্রিটেনব্যাপী ঈর্ষনীয় সাফল্য পায়, অর্জন করে কমিউনিটির অন্যতম মুখপাত্র হওয়ার গৌরব।’

জনমত থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণায় তিনি বলেন, গত ৩০ বছর ধরে জনমত আমার জীবনজুড়ে ছিল অক্সিজেনের মতো। জনমত থেকে সরে দাঁড়ানো আমার জীবনের অন্যতম বড় ঘটনা।

জনমত পত্রিকা থেকে অব্যাহতি নেয়ার ঘোষণায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ৩ শতাধিক অতিথি আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। তারা উঠে দাঁড়িয়ে ভালোবাসায় সিক্ত করেন নবাব উদ্দিনের এই বিদায়কে। জনমত থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার সঙ্গে নবাব উদ্দিন ইষ্টহ্যান্ডস নামে একটি বেসরকারি দাতব্য সংস্থা শুরু করার ঘোষণা দেন।

অনুষ্ঠানে তিন বই থেকে উল্লেখযোগ্য অংশ পাঠ করেন আবৃত্তিকার, সংবাদ পাঠক তৌহিদ শাকিল, শহিদুল ইসলাম সাগর, সাংবাদিক বুলবুল হাসান। আবৃত্তি করেন আবৃত্তিশিল্পী মুনীরা পারভীন, নবাব উদ্দিনের রচিত নাটক থেকে পাঠ করেন উপস্থাপিকা উর্মি মাজহার ও আবৃত্তিশিল্পী সালাউদ্দিন শাহীন।

এছাড়া অনুষ্ঠানে নবাব উদ্দিনের কর্মময় জীবনের উপর আব্দুল হান্নান নির্মিত তথ্যচিত্র দীপ্ত পথচলা এবং ইষ্ট হ্যান্ডস চ্যারিটি সংস্থার উপর দুটি পৃথক তথ্যচিত্র দেখানো হয়।


টুডে মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
[email protected] ☎ ৮৮ ০১৭ ১৪৩৪ ৯৩৯৩
ওয়াহিদ ভিউ (পঞ্চম তলা), পূর্ব জিন্দাবাজার,
সিলেট-৩১০০, বাংলাদেশ।
Developed By - IT Lab Solutions Ltd.