বুধবার, , ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি

০৭ মে, ২০১৮ ১৭:২০

নবীগঞ্জে নকল পণ্য সামগ্রীর কারখানায় অভিযান, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ বাজারে বিএসটিআই এর অনুমোদন ছাড়া এবং বিভিন্ন কোম্পানির লেভেল জালিয়াতি করে পণ্য তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় এক ব্যবসায়ীকে আটক করে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রোববার (৬ মে) দুপুরে নবীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আতাউল গণি ওসমানী অভিযান পরিচালনা করে এ দণ্ডাদেশ দেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের তপথিবাগ গ্রামের সায়েদ উদ্দিনের পুত্র শিপন আহমদ দীর্ঘদিন যাবত ইনাতগঞ্জ পূর্ববাজার সাবেক সোনালী ব্যাংকের পাশের বিল্ডিংয়ের দুতলায় ঘর ভাড়া নিয়ে ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রপাতির মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন নামী দামী কোম্পানির লেভেল ও সিল ব্যবহার করে ভেজাল পণ্য তৈরির কারখানা স্থাপন করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। ভেজাল তৈরিকৃত পণ্যগুলো ছিল ইস্পাহানী, প্রাণ, কোয়ালিটি গোল্ড টি, হৃদয় কিডস, দাদা লিচু ফেইভার, ডিংডং হজমী, মিস্টার বিল পটেটো, ভিটা মটর ভাজা, লেভেন লাচ্ছা, রুবি লাচ্ছা সেমাই, দেশ বন্ধু লাচ্ছা সেমাই, হল ফুড প্রোডাক্টসহ বিভিন্ন ভেজাল পণ্য সামগ্রী।

এই ভেজাল সামগ্রীর বিষয়টি জানতে পেরে রোববার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নবীগঞ্জ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতাউল গণি ওসমানী একদল পুলিশ নিয়ে ওই বিল্ডিংয়ে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় কারখানায় নিয়োজিত ৩ শ্রমিক সহ মালিক শিপনের ভাই রোমনকে আটক করে মালামাল জব্দ করেন। পরে আটককৃত শ্রমিকদের ছেড়ে দিয়ে কারখানার মালিক শিপনকে না পেয়ে তার ভাই রোমনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক মাসের জেল অনাদায়ে নগদ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়ের আদেশ দেন।

পরে আটককৃত রোমন নগদ ৫০ হাজার টাকা পরিশোধ করলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয় এবং জব্দকৃত নকল পণ্যসামগ্রী আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।

এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতাউল গণি ওসমানী বলেন, এই নকল কারখানায় এমন কোন পণ্য নেই, যা তারা তৈরি করছে না। এর মধ্যে বিশেষ করে শিশুদের খাদ্য সামগ্রীই বেশী ছিল। এটা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। সামান্য স্বার্থের জন্য এতো বাজে কাজ করা এটা আমাদের জন্য কষ্টদায়ক।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ফখরুল আহসান চৌধুরী, সার্ভেয়ার মো. ওলি উল্লাহ, তহশিলদার আব্দুল কাইয়ুম, ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ীর এএসআই বিশ্বজিৎ প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত