শান্তিগঞ্জ প্রতিনিধি

২২ জুন, ২০২৪ ২৩:২১

জমি নিয়ে বিরোধ, শান্তিগঞ্জে ছুরিকাঘাতে যুবক খুন: গ্রেপ্তার ২

নিহত নোমান মাহমুদ ওরফে রুমন মিয়া

শান্তিগঞ্জে দরগাপাশা ইউপি চেয়ারম্যান সুফি মিয়ার পুত্রের হামলায় এক যুবক নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও ১ জন।

শুক্রবার (২১ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পাগলা-জগন্নাথপুর সড়কের সিচনী পয়েন্টের ব্রিজের পূর্ব পাড়ে হতাহতের এই ঘটনাটি ঘটে।

নিহত যুবকের নাম নোমান মাহমুদ ওরফে রুমন মিয়া (৩৫)। নোমান সিচনী গ্রামের মৃত হুসমত আলীর ছেলে।

এই ঘটনায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হলেও মুলহোতারা এখনো ধরাছোয়ার বাইরে রয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সিচনি এলাকার ইয়াসিন মুনশির ছেলে আব্দুল কাহার (৫৫) ও গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মো. মোজাম্মেল হক (২৩)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও সিচনী গ্রামের বাসিন্দা বাবুল মিয়া বলেন, তিনি সেতুর ওপর বসে ছিলেন। নোমান আক্তাপাড়া বাজার থেকে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে এসে ঘটনাস্থলে নামেন। সেখানে গাছের সঙ্গে তার নৌকা বাঁধা ছিল। বাড়িতে যাওয়ার জন্য নৌকায় ওঠার সময় দরগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সুফি মিয়ার ছেলে ফাহিম আহমদ (২৮) ও নাঈম আহমদ (২৪) এবং তাদের সঙ্গে থাকা আরও কয়েকজন এসে নোমানের ওপর অতর্কিত হামলা চালান। তিনি ও এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য জামিল আহমদ দৌড়ে গিয়ে নোমানকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন।

একপর্যায়ে নোমান ও জামিল আহমদকে ছুরিকাঘাত করে হামলাকারীরা একটি নৌকায় করে সেখান থেকে চলে যান। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় দুজনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক নোমানকে মৃত ঘোষণা করেন। জামিল আহমদ সেখানে চিকিৎসাধীন।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের সূত্রে জানা গেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে এই ঘটনা ঘটেছে।

শান্তিগঞ্জ থানার ওসি কাজি মোক্তাদির হোসেন বলেন, এই ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিল। অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তারে জোর চেষ্টা চলছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত