সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক

২৩ মে, ২০১৬ ২১:৪৭

হেলমেট না পরায় সমালোচিত সড়কমন্ত্রী

রাস্তায় চালকদের নানা অনিয়ম দূর করতে সশরীরে অভিযান চালিয়ে প্রায়ই প্রশংসিত হন সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এবার নিজ এলাকায় গ্রামের রাস্তায় হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেলে চড়ে সমালোচিত হলেন তিনি।

সম্প্রতি মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিজ এলাকায় দলীয় নেতাকর্মী সহ মোটরবাইকে ঘুরতে দেখা গেছে তবে তাকে বহনকারী মোটরসাইকেল চালক ও তিনি নিজে কেউই হেলমেট পরা ছিলেন না। যদিও আইনে আছে মোটরসাইকেল চালক ও যাত্রী উভয়কেই হেলমেট পরতে হবে। কোন কারণে পেছনের যাত্রী হেলমেট না পরলেও চালকের জন্য সেটা একেবারেই আবশ্যক।

এ ঘটনার পর সোমবার (২৩ মে) বাংলাদেশের প্রথম মোটরসাইকেল ব্লগ দাবিদার "বাইক বিডি" নামের একটি গ্রুপ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের গ্রামের রাস্তায় মোটরসাইকেলে হেলমেটবিহীন একটা ছবি পোস্ট দিয়েছে। আর তা নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। ফেসবুকে বাইক বিডির প্রায় সাড়ে তিন লাখ অনুসারি রয়েছে। এ ছবি পোস্ট করার পর থেকে অনেককেই বিভিন্ন মন্তব্য করতে দেখা গেছে।

মন্ত্রীর ছবি পোস্ট করে বাইক বিডি লিখেছে, ‘মাননীয় যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাহেব, কিছুদিন আগে সংবাদমাধ্যমে জানতে পারলাম আপনি মহাসড়কে বাইক থামিয়ে বাইকারদের হেলমেট না থাকার দরুন তাদের হেলমেট পড়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। এই খবর শুনে আমাদের খুব ভালো লাগলো, কারণ আমরা বাইক বিডি থেকে গত সাড়ে ৩ বছর ধরে বাইকারদের মধ্যে হেলমেট ব্যবহার জনপ্রিয় করার উদ্দেশ্যে কাজ করে যাচ্ছি।’

গ্রুপটি আরো লিখেছে, ‘কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার হেলমেটবিহীন বাইকারের সাথে বাইক যাত্রার ছবি দেখে আমরা খুব মর্মাহত...’
আশা করি ভবিষ্যতে বাইকারদের হেলমেট ব্যবহারে উৎসাহিত করবেন এবং এই ধরনের হেলমেটবিহীন বাইক যাত্রা থেকে বিরত থাকার অনুরোধ রইলো...’

মন্ত্রীর হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেল যাত্রার ছবি ফেসবুক থেকে সংগ্রহের কথা উল্লেখ করেছে বাইক বিডি। এতে অনেকেই মন্তব্য করেছেন। তাদের মধ্যে এমডি সাগর নামে একজন মন্তব্য করেছে, ‘গ্রামের রাস্তা, ইটস ওকে, বাট এট লিস্ট হেলমেট সঙ্গে রাখা উচিত ছিলো।’

এমডি আতিকুর রহমান নামের আরেকজন মন্তব্য করেছেন, ‘গ্রামের রাস্তায় কয়জন হেলমেট পরে চালায়।’

সালমান আহম্মেদ নামে একজন লিখেছেন, ‘এক্সিডেন্ট কি শুধু শহরের জন্য।’

তামিম আল মাহির অর্ক নামে একজন ছবি পোস্ট দিয়ে লিখেছেন, ‘এই জন্যেই কথায় বলে- “আগে নিজের চরকায় তেল দাও, পরে অন্যেরে দিও।”


আপনার মন্তব্য

আলোচিত