নিজস্ব প্রতিবেদক

২৩ জুন, ২০২২ ২১:১০

সিলেট নগরজুড়ে আগুন আতঙ্ক

সিলেট নগরের লাক্কাতুরা গ্যাস কুপে অতিরিক্ত গ্যাস পুড়ানোর (ফায়ার ফ্লো) কাজ করছে বহুজাতিক তেল-গ্যাস কোম্পানি শেভরন। একারণে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নগরের উত্তর পশ্চিম দিকের আকাশ আগুন বর্ণ ধারণ করে। এতে নগরজুড়ে আগুন আতঙ্ক দেখা্ দেয়।

প্রলয়ঙ্কর বন্যার মধ্যে আগুনের শিখা দেখে সন্ধ্যার পর থেকে উদ্বিগ্ন হয়ে পরেন নগরবাসী। একে অপরকে ফোন করেও আগুনের শিখা সম্পর্কে জানতে চান। ফায়ার সার্ভসের অফিসেও আসতে থাকে একের পর এক ফোন। সবাই আতংকিত হয়ে আগুনের উৎস সম্পর্কে জানতে চান।

ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের সিলেট কার্যালয়ের দায়িত্বরত এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সন্ধ্যা থেকে শতাধিক মানুষ এই আগুনের উৎস জানতে কল দিয়েছেন। জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসনের অনেক কর্মকর্তাও কল দিয়ে এর উৎস সম্পর্কে জানতে চাইছেন।

তিনি বলেন, সবার মধ্যেই আগুন আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে আমরা খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছি, কোথাও আগুন লাগেনি। লাক্কাতুরা গ্যাসক্ষেত্রে ফায়ার ফ্লো করছে শেভরন।

এই কর্মকর্তা বলেন, এরকম কিছু করার আগে আমাদের অবগত করার নিয়ম রয়েছে। তারা আমাদের আগে জানালে আমরা জনগনকে অবহিত করতে পারতাম। কিন্তু শেভরণ কর্তৃপক্ষ আমাদের আগে থেকে এ ব্যাপারে অবহিত করেনি। ফলে সবার মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের সিলেটের জ্যেষ্ঠ স্টেশন অফিসার বেলাল আহমদ বলেন, শেভরন একটা বাজে কাজ করেছে। তাদের এধরণের কাজ করার আগে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ, জেলা প্রশাসন, মিডিয়াসহ সংশ্লিস্টদের জানানো উচিত ছিলো।

তিনি বলেন, এমনিতেই বন্যা নিয়ে মানুষ আতঙ্কে আছে। এরমধ্যে এমন ঘটনায় নগরজুড়ে আগুন দেখা দেখা দিয়েছে।

আগুনের খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসেছেন জানিয়ে বেলাল বলেন, আগুন প্রায় ২০ ফুটের উপরে উঠে গেছে। ফলে স্বাভাবিকভাবে সবার মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। শেভরণের এই কাজ করা ঠিক হয়নি।

লাক্কাতুরা গ্যাসক্ষেত্রের পরিচালনায় রয়েছে শেভরণ। প্রতিষ্ঠানটির জনসংযোগ কর্মকর্তা শেখ জাহিদুর রহমান বলেন, শেভরণ লাক্তাতুরা গ্যাস ক্ষেত্রের সংস্কার কাজ করবে। এজন্য পাইপে থাকা অতিরিক্ত গ্যাস জ্বালানো হচ্ছে। তাই আগুনের শিখা দেখা যাচ্ছে। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

তিনি বলেন, প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোকে জানিয়েই এই কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি সিলেটের সমন্বয়ক শাহ শাহেদা আক্তার বলেন, আমার বাসা থেকে আগুনের শিখা দেখা যাচ্ছে। এতে আমার পরিবারের সদস্যরাও আতঙ্কে আছেন। শেভরণ কোন সংস্কার কাজ করলে আগে থেকে তা নগরবাসীকে জানানো উচিত ছিলো।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত