Advertise

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি

০৫ এপ্রিল, ২০২০ ০১:১০

বিশ্বনাথে গাছের ডালে ঝুলে ছিলো যুবকের অর্ধগলিত লাশ!

নিখোঁজের দীর্ঘ ১২দিন পর অন্য ইউনিয়নের কবরস্থানের মাঝখানে উঁচু একটি গাছের ডালে পাওয়া গেল বেলাল আহমদ (২৬) নামের এক যুবকের অর্ধগলিত লাশ। তিনি সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের বাহাড়াদুবাগ গ্রামের সমসু মিয়ার ছেলে।

শনিবার (৪এপ্রিল) সন্ধ্যায় বাহাড়াদুভাগের পাশ্ববর্তি দেওকলস ইউনিয়নের উত্তর কালিজুরি গ্রামের পশ্চিমের কবরস্থানের মাঝখানে গাছের ডালে তার লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। তবে, পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলেও দুর্গন্ধ আর রাত হওয়ার কারণে থানা পুলিশ তারা লাশ উদ্ধার করতে পারেনি।

এর আগে গত ২৩ মার্চ সোমবার ঢাকার তাবলিগ জামাত থেকে মা বাহারা বেগমকে মুঠোফোনে জানিয়েছিলেন তাকে আর পাওয়া যাবে না। এর পর থেকে তার মোবাইল ফোনটিও বন্ধ ছিল।

বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামীম মুসা। ওই যুবক আত্মহত্যা করেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, প্রায় ১২ আগে মৃত্যু হওয়ায় পরনের লুঙ্গিসহ লাশের একটি পা শেয়াল টেনে নিয়ে গেছে, আর অত্যাধিক দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। এর মধ্যে তার বাবা এসে লাশও সনাক্ত করেছেন। এতে দেরি হওয়ায় আর লাশ উদ্ধার তারা করতে পারেন নি। রোববার লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হবেও বলেও জানান তিনি।

বেলালের পিতা সমসু মিয়ার সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, সম্প্রতি তিনি তার ছেলেকে নিয়ে ঢাকায় তাবলিগ জামাতে গিয়েছিলেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বাড়ায় দেশে লকডাউন হওয়ায় তিনি বাড়িতে ফিরে আসলেও তার ছেলে বেলাল আসেনি। আর গত ২৩ মার্চ বেলাল তার মাকে মোবাইল ফোনে বলেছে, তাকে আর পাওয়া যাবে না, তার জন্য যেন দোয়া করেন। এর পর থেকে সে নিখোঁজ ছিল এবং তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও বন্ধ ছিল।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত