COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

56

Confirmed Cases,
Bangladesh

06

Deaths in
Bangladesh

25

Total
Recovered

986,310

Worldwide
Cases

50,395

Deaths
Worldwide

206,372

Total
Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২০ ২৩:৫৪

একুশে পদকপ্রাপ্তদের সমালোচনায় বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক

ছবি: ফেসবুক

বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ একুশে পদক ২০২০ পাচ্ছেন দেশের ২০ বিশিষ্ট ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠান। বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পদকপ্রাপ্তদের এ তালিকা প্রকাশ করে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁদের হাতে একুশে পদক তুলে দেবেন।

এদিকে, এবারের একুশে পদকপ্রাপ্তদের তীব্র সমালোচনা করেছেন বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান। একই সঙ্গে তিনি বিচারক ও বাছাইকারীদের যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন।

শুক্রবার তিনি এর সমালোচনা করে ফেসবুকে লিখেন-

এবার একুশ পদক বড়ই হতাশাব্যঞ্জক হয়েছে। যারা এ পুরস্কার কমিটিতে ছিলেন তাদের সাহিত্য সংস্কৃতি সম্বন্ধে কোন ধারণা নেই। তিন চারটি ছাড়া অন্যগুলো হাস্যকর। কে সাহিত্যিক, কে মুক্তিযোদ্ধা, কে একেবারেই এ পুরস্কার পেতে পারেন না সে সম্পর্কে বিচারক/বাছাইকারীদের অজ্ঞতা পর্বত প্রমাণ। এতে সরকারের বদনাম হয়। সরকারকে বিষয়টি নিয়ে গুরুত্বের সঙ্গে ভাবতে হবে'।

ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে সরকার ১৯৭৬ সাল থেকে প্রতি বছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এই পুরস্কার দিয়ে আসছে।

এবার পদক পাচ্ছেন- ভাষা আন্দোলনে মরণোত্তর আমিনুল ইসলাম বাদশা। শিল্পকলায় (সংগীত) বেগম ডালিয়া নওশিন, শঙ্কর রায় ও মিতা হক। শিল্পকলায় (নৃত্য) মো. গোলাম মোস্তফা খান। শিল্পকলায় (অভিনয়) এম এম মহসীন। শিল্পকলায় (চারুকলা) অধ্যাপক শিল্পী ড. ফরিদা জামান।

মুক্তিযুদ্ধে (মরণোত্তর) আক্তার সরদার, আব্দুল জব্বার, ডা. আ আ ম মেসবাহুল হক (বাচ্চু ডাক্তার), সাংবাদিকতায় জাফর ওয়াজেদ (আলী ওয়াজেদ জাফর), গবেষণায় ড. জাহাঙ্গীর আলম, হাফেজ কারী আল্লামা সৈয়দ মোহাম্মদ ছাইফুর রহমান নিজামী শাহ।

শিক্ষায় অধ্যাপক ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া, অর্থনীতিতে অধ্যাপক ড. শামসুল আলম। সমাজসেবায় সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, ভাষা ও সাহিত্যে ড. নুরুন নবী, সিকদার আমিনুল হক (মরণোত্তর) ও বেগম নাজমুন নেসা পিয়ারি। চিকিৎসায় অধ্যাপক ডা. সায়েবা আখতার।

প্রতিষ্ঠানের মধ্যে গবেষণায় একুশে পদক পাচ্ছে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনিস্টিটিউট।

ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে সরকার ১৯৭৬ সাল থেকে প্রতি বছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এই পুরস্কার দিয়ে আসছে।

পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ৩৫ গ্রাম ওজনের একটি স্বর্ণপদক, এককালীন দুই লাখ টাকা ও একটি সম্মাননাপত্র দেওয়া হবে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত