Advertise

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৭ এপ্রিল, ২০২০ ২০:২৯

ত্রাণ চুরি করা চেয়ারম্যান-মেম্বাররা জাপা, জাসদ ও বিএনপির সমর্থক

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণের সংকটময় পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ-সমাবেশে বিএনপির ইন্ধন রয়েছে বলে অভিযোগ করে তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ দাবি করেছেন, চালসহ ত্রাণ চুরি করা চেয়ারম্যান-মেম্বাররা জাপা, জাসদ এবং বিএনপির সমর্থক।

তিনি বলেন, বর্তমান সংকটকালে বিএনপি সাহায্যের হাত না বাড়িয়ে নানাভাবে লোক ভাড়া করে বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশে নানাভাবে মদদ দিচ্ছে।

ড. হাছান শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর মিন্টু রোডের বাসভবনে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি সহযোগিতা করতে জনগণের পাশে দাঁড়ায়নি। কয়েকটি স্থানে কিছু ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করে এবং ফটোসেশনে সরকারের সমালোচনাতেই তারা ব্যস্ত।

তিনি এই সংকটময় পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১২ বিলিয়ন ডলারের পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে বলেন, আমরা সবাইকে সঙ্গে নিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।

সরকার ৫০ লাখেরও বেশি পরিবারকে ১০ টাকা কেজি দরে প্রতি মাসে ত্রিশ কেজি করে চাল দিচ্ছে বছরে ৭ মাস। আরও ৫০ লাখ পরিবারের তালিকা করে রেশন কার্ড দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী করোনা পরিস্থিতিতে সরকার এবং দলের পক্ষ থেকে পৃথকভাবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের জন্য ৭০ হাজার জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনকে নির্দেশনা দিয়েছেন। ভবিষ্যতে যাতে দেশে কোন সংকট তৈরি না হয় তার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নানা প্রস্তুতি গ্রহণ করা হচ্ছে।

ত্রাণ সহায়তার ক্ষেত্রে যারা দুর্নীতি ও অপরাধ করবে তাদেরকে কঠোরভাবে দমন করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ইতিমধ্যে যেসব চেয়ারম্যান মেম্বার এসব দুর্নীতি করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েক জন বিএনপি ও জাসদসহ বিভিন্ন দলের চেয়ারম্যান-মেম্বার রয়েছেন। তেলসহ চাল নিয়ে যারা দুর্নীতি করেছে তাদের বর্তমান ও অতীত দলীয় অবস্থান থেকে দেখা যায় তারা জাপা, জাসদ এবং বিএনপির সমর্থক।

মন্ত্রী করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত