তাহিরপুর প্রতিনিধি

২৫ ফেব্রুয়ারি , ২০২১ ১৮:৫৬

তাহিরপুরে হাওরের পানি নিষ্কাশনের নালা মাটি দিয়ে ভরাটের অভিযোগ

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার মাটিয়ান হাওরের সিঙ্গাড় দাড় জাঙ্গাল কেটে ও হাওরের পানি নিষ্কাশনের নালা মাটি দিয়ে ভরাটের অভিযোগ উঠেছে।

এমন অভিযোগ ওঠেছে উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য শফিকুল ইসলাম বিরুদ্ধে। তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইউপি সদস্য।

বৃহস্পতিবার দুপুরের উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণ সিন্ধু চৌধুরী নিকট অর্ধশত কৃষক স্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগ দায়ের করে এলাকাবাসীর পক্ষে সাবেক ইউপি সদস্য সিজিল মিয়া।

লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের মাটিয়ান হাওরের সিংহাড়দার জাঙ্গালটি দিয়ে কৃষকরা চারারোপন ও বোরো ধান কেটে বাড়ি নিয়ে যান। এই জাঙ্গালের পাশের একটি হাওরের পানি নিষ্কাশনের নালা রয়েছে। তবে ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম মাটি কেটে নিয়ে এই নালা ভরাট করছেন। এতে করে হাওরের পানি নিষ্কাশন ব্যাহত হবে এবং জাঙ্গাল দিয়ে কৃষকরা চারা রোপন ও উৎপাদিত বোরো ধান পরিবহনে চরম দুর্ভোগের শিকার হবেন।

অভিযোগের বিষয়ে শফিকুল ইসলাম জানান, আমি আমার রেকর্ডকৃত জায়গা থেকে মাটি কেটে নিয়েছি। আমাকে নিষেধ করার পর আমি মাটি কাটা বন্দ করে দিয়েছি।

অভিযোগকারী সিজিল মিয়া জানান, হাওরের অর্ধশত কৃষকদের দাবী ও জনস্বার্থে আমি সবার স্বাক্ষর নিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। যাতে করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি না হয় এবং প্রশাসন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেন।

উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানান
উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান খসরুল আলম। তিনি আরও জানান, আমার ইউনিয়নের হাওরে সিংহাড়দার জাঙ্গাল কাটা ও নালা ভরাটের অভিযোগ কৃষক সহ এলাকাবাসী জানালে আমি আমার প্রতিনিধি পাঠিয়ে মাটি কাটা বন্ধ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি। ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

তাহিরপুর উপজেলার পরিষদের চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন, একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এই বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হবে এমন কোন কাজ কাউকে করতে দেওয়া হবে না।


আপনার মন্তব্য

আলোচিত