নবীগঞ্জ প্রতিনিধি

১২ মে, ২০২২ ২২:৪৭

ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় নুরুল ইসলাম নাহিদ (৩০) নামে এক যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৬ মাসের বিনাশ্রম কারান্ড দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ হালিম উল্লাহ চৌধুরী এ দন্ডাদেশ প্রদান করেন।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ১৬ জুলাই নবীগঞ্জ উপজেলার দাউদপুর গ্রামের ১৫ বছরের স্কুল পড়ুয়া কিশোরী একই গ্রামের মৃত ওয়াব উল্লার পুত্র ফ্লেক্সিলোড ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম নাহিদ কৌশলে ঘরে প্রবেশ করে জোরপূর্বক তুলে তার নিয়ে বাড়িতে ধর্ষণ করে। এতে সহযোগিতা করে রিনা বেগম। এক পর্যায়ে নুরুল ইসলাম পালিয়ে যায়। পরের দিন কিশোরীকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় গোলজার মিয়া বাদি হয়ে ওইদিনই নবীগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করলে পুলিশ নুরুল ইসলাম নাহিদকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করে। দীর্ঘদিন কারাবাস করার পর উচ্চ আদালত থেকে জামিনে এসে পলাতক হয় সে।

দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৯ সালের ৮ এপ্রিল গোপলার বাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ শামস উদ্দিন খান আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশীট) দাখিল করেন নাহিদ ও রিনাকে আসামি করে। স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালত এ রায় দেন। রায়ের সময় আসামি নাহিদ পলাতক এবং রিনা আদালতে হাজির ছিল।

তবে দোষী প্রমাণিত না হওয়ায় অন্য আসামি আনসার মিয়ার স্ত্রী রিনা বেগমকে বেখসুর খালাস দেয়া হয়েছে । রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট মোঃ মোস্তুফা মিয়া এবং আসামি পক্ষে ছিলেন শহিদুল ইসলাম।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত