কমলগঞ্জ প্রতিনিধি

০৫ ফেব্রুয়ারি , ২০২৪ ১৭:১১

কমলগঞ্জে জমি দখলের চেষ্টা ও হামলার অভিযোগ

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মৌরসীসূত্রে প্রাপ্ত রুবেল মিয়ার জমি জোরপূর্বক দখল করার চেষ্টা ও হামলার অভিযোগ উঠেছে আহমদ আলী লুলু ও তার ছেলেদের বিরুদ্ধে। জমি দখল করতে গিয়ে মারধর করা হয়েছে জমির মালিক রুবেল মিয়াকে।

এ ঘটনায় রুবেল মিয়ার ভাই সবির মিয়া বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে গত শনিবার রাতে কমলগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এর আগে গত শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের দক্ষিণ পল্কী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের দক্ষিণ পল্কী গ্রামের মৌরসীসূত্রে প্রাপ্ত জমি রুবেল মিয়া ভোগদখল করে আসছেন। হঠাৎ করে গত শুক্রবার আহমদ আলী লুলু, খলিল মিয়া, জলিল মিয়া ও সায়রা বেগম জমি দখলের জন্য জোরপূর্বক গৃহ নির্মাণের কাজ শুরু করেন। এসময় রুবেল মিয়া বাধা দিলে আহমদ আলী লুলু ও তার দুই ছেলে রুবেল মিয়াকে বেধড়ক মারপিট করে আহত অবস্থায় ফেলে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ও পরবর্তীতে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান।

আহত রুবেল মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমি আমার মৌরসীসূত্রে প্রাপ্ত জমি ভোগদখল করে আসছি। হঠাৎ করে আহমদ আলী লুলু তার ছেলেদের নিয়ে গত শুক্রবার তার জায়গা দাবি করে আমার ওপর রড ও ইট দিয়ে হামলা করে আহত করে। এর আগেও তারা আমার উপর হামলা করার হুমকি দিয়েছে। এরপর আমি আতঙ্কিত হয়ে নিরাপত্তার জন্য কোর্টে গিয়ে মামলা করি। এ ঘটনায় তারা গত ২৪ ডিসেম্বর আমার ওপর হামলা করবে না বলে আদালতে মুচলেকা দিয়ে আসে। আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তারা আবার আমার উপর হামলা করতে পারে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আহমদ আলী লুলুকে পাওয়া যায়নি।

তবে অপর অভিযুক্ত সায়রা বেগম বলেন, এসব অভিযোগ মিথ্যা। আমরা কোন জমি দখল করিনি। তারা আমাদের জমি দখল করে রাতে খড়ের গাদায় আগুন দিয়েছে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. আব্দুল হান্নান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুই পক্ষের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ দীর্ঘ দিনের। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে মারধরের ঘটনা ঘটেছে।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ওসি (নি।) শামীম আকনজি বলেন, জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় রুবেল মিয়াসহ দু’জন আহত আছেন। এবিষয়ে অভিযোগ রয়েছে। তদন্তপূর্বক যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত