নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ ফেব্রুয়ারি , ২০২৪ ২২:২৯

জৈন্তাপুরে বালু উত্তোলনে চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ

জৈন্তাপুরে সারী নদী থেকে বালু উত্তোলনে চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন।

সোমবার সকাল সাতটার দিকে জৈন্তাপুরের লালাখাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর।

তারা হলেন- জৈন্তাপুরের বাউরভাগ উত্তর গ্রামের শাহিন মিয়া (৪৮), কামরাঙ্গীখেল দক্ষিণ গ্রামের সেলিম আহমদ (৩৫) ও কামরাঙ্গীখেল উত্তর গ্রামের আবদুল মালিক (৫০)। তারা সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আহত অন্য ব্যক্তিরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লালাখাল সারী নদীর উৎসমুখ থেকে স্থানীয় শ্রমিকেরা বালু উত্তোলন করে থাকেন। এতে স্থানীয় প্রভাবশালী একটি চক্র শ্রমিকদের কাছ থেকে বালুর নৌকাপ্রতি চাঁদা আদায় করে। আজ সকালেও স্থানীয় কয়েকজন শ্রমিক বালু উত্তোলন করছিলেন। এ সময় চক্রটি চাঁদা আদায় করতে গেলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

জৈন্তাপুরের ইউএনও মোহাম্মাদ সাজেদুল ইসলাম বলেন, সারী নদীতে হাইকোর্টের নির্দেশে বালু উত্তোলন বন্ধ রয়েছে। তবে একটি চক্র প্রায়ই বালু তোলার চেষ্টায় থাকে। সোমবার বালু উত্তোলন নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, নদীর বালু উত্তোলনে কোনো ইজারা দেওয়া হয়নি। এরপরও স্থানীয় কিছু শ্রমিক সনাতন পদ্ধতিতে বালু উত্তোলন করছিলেন। এ নিয়েই দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত