ছাতক প্রতিনিধি:

২৩ মে, ২০২৪ ১৬:০৬

ছাতকে বিদ্যালয়ের দপ্তরীর হামলায় প্রধান শিক্ষিকা আহত

সুনামগঞ্জের ছাতকে দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরীর হামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষিকা গুরুতর আহত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে ছাতক উপজেলার ভাতগাঁও ইউনিয়নের ভাতগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা শংকরী রানী দে দপ্তরী রুবেল মিয়াকে বিদ্যালয় পরিস্কার করার কথা বলেন। এতে রেগে যান রুবেল মিয়া। বিদ্যালয় পরিস্কার করা তার কাজ নয় বলে তিনি প্রধান শিক্ষিকার দিকে তেড়ে আসেন।

এ বিষয় নিয়ে বাক-বিতন্ডার এক পর্যায়ে প্রধান শিক্ষিকাকে শংকরী রানীকে চেয়ার দিয়ে আঘাত করেন রুবেল মিয়া। বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষিকারা এ সময় তার হাত থেকে চেয়ার কেড়ে নিলে তিনি আবারও লোহার রড় দিয়ে প্রধান শিক্ষিকার মাথায় আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত হন প্রধান শিক্ষিকা।

গুরুতর আহত অবস্থায় শিক্ষিকাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বুধবার হাসপাতাল থেকে তিনি বাসায় ফেরেন।

এ ব্যাপারে আহত স্কুল শিক্ষিকার বড় ভাই চন্দন পাল বলেন, হামলার ঘটনায় বৃহস্পতিবার আমরা ছাতক থানায় লিখিত এজাহার জমা দিয়েছি। তবে হামলাকারীকে এখনও গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ।

অভিযক্ত দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী রুবেল মিয়া ভাতগাঁও গ্রামের কাচা মিয়ার পুত্র।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত