সিলেটটুডে ডেস্ক

২৩ মে, ২০২৪ ১৩:৪৭

কাপড় ধুতে বলায় স্ত্রীকে শ্বা-সরো-ধে হত্যা: স্বামীর মৃ-ত্যুদ-ণ্ড

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে কাপড় ধুতে বলায় খালেদা আক্তার নামের নারীকে ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামী মোজাম্মেল হোসেন রাজুকে মৃ-ত্যু দণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।

অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতের বিচারক রোজিনা খান বৃহস্পতিবার দুপুরে এ রায় দেন।

মৃ-ত্যু দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত রাজুর বাড়ি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শাটিষক গ্রামে।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, খালেদা আক্তারকে বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী রাজু বেকার ছিলেন। এ কারণে মেয়েসন্তানকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতেন খালেদা।

রাজু ২০১৮ সালের ২ নভেম্বর শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যান। পরের দিন ভোরে স্বামীকে কাপড় ধুয়ে দেয়ার কথা বলেন খালেদা। এ নিয়ে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে খালেদার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন তার স্বামী।

মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়, খালেদার মরদেহ পুকুর ঘাটের কাছে ফেলে রেখে আসামি পালিয়ে যান। এরপর ঘাটে মেয়ের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে রাজুকে আসামি করে কুমিল্লার নাঙ্গলকোট থানায় হত্যা মামলা করেন খালেদার বাবা।

রায় ঘোষণাকালে দণ্ড প্রাপ্ত আসামি রাজু আদালতের কাঠগড়ায় অনুপস্থিত ছিলেন।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে অতিরিক্ত পিপি আমিনুল ইসলাম ও নুরুল ইসলাম জানান, তাদের আশা, উচ্চ আদালত এ রায় বহাল রেখে দ্রুত বাস্তবায়ন করবে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত