Advertise

বড়লেখা প্রতিনিধি

২৩ মে, ২০২০ ১২:৩৬

১২০০ নেতাকর্মীকে বিএনপি নেতার ঈদ উপহার

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় করোনাভাইরাস সংকটে সাময়িক অসুবিধাগ্রস্ত বিএনপির নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন কাতার বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও জেলা বিএনপির উপদেষ্টা শরিফুল হক সাজু। তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে বড়লেখা উপজেলার দশটি ইউনিয়ন ও পৌরসভার বিভিন্ন ইউনিটের অসুবিধাগ্রস্ত ১২শ নেতাকর্মীকে ‘ঈদ উপহার’ দিয়েছেন।

শনিবার (১৬ মে) থেকে সহায়তা দেওয়া শুরু হয়। চলবে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে অঘোষিত লকডাউনের শুরুতে তার উদ্যোগে উপজেলাব্যাপী জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়। হঠাৎ কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের মধ্যে বিতরণ করা হয় খাদ্যসামগ্রী। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় বসানো হয় বিনামূল্যের সবজি বাজার। এ বাজার থেকে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত এবং খেটে খাওয়া মানুষজন নিয়েছেন বিনামূল্য সবজি। যারা কখনো কারও কাছে হাত পাততে অভ্যস্ত নন, তারাও এখন নিরুপায়। হঠাৎ সংকটে পড়া এরকম মানুষদের পরিচয় গোপন রেখে প্রতিনিধিদের মাধ্যমে অর্থ সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন। এ ধারাবাহিকতায় করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে হঠাৎ সংকটে পড়া দলের ১২শ নেতাকর্মীর তালিকা তৈরি করে ‘ঈদ উপহার’ হিসেবে প্রতিনিধির মাধ্যমে পৌঁছে দিচ্ছেন নগদ অর্থ।

এ বিষয়ে বড়লেখা উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রাহেনা বেগম হাছনা বলেন, ‘দীর্ঘ ১২ বছর ধরে শরিফুল হক সাজু মামলা, হামলায় নির্যাতিত দলের নেতাকর্মীদের সহযোগিতা করে আসছেন। এ ধারাবাহিকতায় করোনা পরিস্থিতে নেতাকর্মীদের ঈদ উপহার দিয়েছেন। এর আগে তিনি করোনা সংকটে ফ্রি সবজি বাজারসহ নানাভাবে মানুষকে সহযোগিতা করেছেন।’

কাতার বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উপদেষ্টা শরিফুল হক সাজু শুক্রবার (২২ মে) রাতে মুঠোফোনে বলেন, ‘দলের অনেক নেতাকর্মী আছেন স্বচ্ছল। যারা আগে ব্যবসা-বাণিজ্য করেস্ব চ্ছলভাবে চলছিলেন, যারা কখনো কারও কাছে হাত পাততে অভ্যস্ত নন, তারাও করোনা সংকটকালে এখন বিপাকে। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি দলের নেতাকর্মীদেরও ‘ঈদ উপহার’ হিসেবে পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। সংকট যতদিন থাকবে দল ও দলের বাইরের মানুষের পাশে থাকব। এই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত