সিলেটটুডে ডেস্ক

২৪ নভেম্বর, ২০২১ ১৬:১৪

খালেদা জিয়াকে বিদেশ পাঠানোর দাবিতে বিএনপির স্মারকলিপি

বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে, বিএনপি চেয়ারপার্সন ও তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিতে দ্রুত বিদেশ পাঠানোর দাবিতে জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি দিয়েছে সিলেট জেলা বিএনপি। বুধবার দুপুরে সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলামের কাছে স্মারকলিপি দেন তারা। এসময় জেলা বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের সকল পর্যায়ের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক বরাবরে দেয়া স্মারকলিপিতে বলা হয়- বেগম খালেদা জিয়া তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন। তিনি ক্ষমতাসীন সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়ে দীর্ঘদিন কারান্তরীন। আমৃত্যু গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রামী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া একটি ষড়যন্ত্রমুলক মামলার ফরমায়েসী রায়ে দীর্ঘদিন কারান্তরীণ ছিলেন। বতর্মানে তিনি কারামুক্ত হলেও গৃহবন্দী রয়েছেন। সরকারের রাজনৈতিক ও মানসিক নির্যাতনে বেগম খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তিনি বিগত দিনে করোনাক্রান্ত হয়েছিলেন। বর্তমানে হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগণ তাকে দ্রুত বিদেশ প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু সরকার তাঁর সুচিকিৎসা নিশ্চিতের পরিবর্তে তাকে ক্রমাগত মৃত্যুর মূখে ঠেলে দিচ্ছে। প্রয়োজনীয় চিকিৎসাগ্রহণ যে কোন নাগরিকের মৌলিক অধিকার হলেও। শুধুমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ প্রেরণে সরকার টালাবাহানা করছে।

এদিকে দিন দিন তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি ঘটছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, আইন বিশেষজ্ঞ, নাগরিক সমাজ এবং আপামর জনতার দাবীর প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে শ্রদ্ধাশীল হয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে দ্রুত বিদেশ পাঠানোর ব্যবস্থা করতে হবে। এতে আইনী কোন বাধা নেই বলে আইন বিশেষজ্ঞগণ সরকারকে দেখিয়ে দিয়েছেন। আইন ও মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন, তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর সুচিকিৎসা নিশ্চিতে দ্রুততম সময়ে মধ্যে বিদেশ প্রেরণ করুন। অন্যথায় দেশে যে কোন অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতির দায়ভার সরকারকে বহন করতে হবে।
 
স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির ১নং সদস্য আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য এডভোকেট হাদিয়া চৌধুরী মুন্নি, জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আশিক উদ্দিন চৌধুরী, অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, আব্দুল মান্নান, মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী, আবুল কাশেম, সদর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক এ কে এম তারেক কালাম, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যান, সাবেক দফতর সম্পাদক এডভোকেট মোঃ ফখরুল হক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের যুগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, সাবেক জেলা সহ-দফতর সম্পাদক আব্দুল মালেক, বিএনপি নেতা আব্দুল লতিফ খান, দিলোয়ার হোসেন জয়, ইমরান গাজী, জেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিম, জেলা শ্রমিক দলের সহ-সভাপতি মাসুক এলাহী, যুবদল নেতা সুমেল আহমদ চৌধুরী, সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট নজরুল ইসলাম, যুবদল নেতা মঈন উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আমজাদ হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জুনেদ আহমদ চৌধুরী ও সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক দিলদার হোসেন শামীম প্রমূখ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত