COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

164

Confirmed Cases

17

Deaths

33

Recovered

1,364,737

Cases

76,482

Deaths

293,879

Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২০ ২২:৫১

সমাজকে সচেতন করতে মুক্ত সংস্কৃতি চর্চার প্রয়োজন: ডিসি সিলেট

একুশের আলোকে নাট্য প্রদর্শনী সমাপনীতে জেলা প্রশাসক

সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেন, মানুষকে জাগ্রত করতে এবং সমাজকে সচেতন করতে প্রয়োজন মুক্ত সংস্কৃতি চর্চার। একটি মানবিক বাংলাদেশের জন্য নাট্য ও সংস্কৃতি চর্চার বিকল্প নেই। নাটকের মধ্য দিয়ে অতি সহজেই মানুষের কাছে সমাজ জীবনের চিত্র ও ঐতিহাসিক ঘটনাবলী তুলে ধরা সম্ভব।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) একুশের আলোকে নাট্য প্রদর্শনীর ১৭ দিনব্যাপী আয়োজনের সমাপনী দিন প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম।

তিনি নাট্য পরিষদের একুশের আলোকে নাট্য প্রদর্শনীর প্রশংসা করে বলেন, এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে এখানকার নাটকের দর্শকরা যেমন ভাল কিছু নাটক উপভোগ করেছেন তেমনই নাট্যকর্মীদের মধ্যে একটা উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করেছে।

‘একুশে মিছিল, একুশে হাঁটা, একুশ মানে না পথের কাঁটা’ এই স্লোগানে মহান ভাষার মাস ফেব্রুয়ারিতে সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট  ১৭ দিনব্যাপী নাট্য প্রদর্শনীর আয়োজন করে। সমাপনী দিন সোমবার ছিল নান্দিক নাট্যদলের নাটক ‘বাসন’। এটি রচনা করেছেন সেলিম আল দীন, পুন:নির্দেশনা দিয়েছেন উজ্জ্বল দাস। নাটকে অভিনয় করেন উজ্জ্বল দাস, কনোজ চক্রবর্তী, মাধব কর্মকার, ইমরান খান, ফখরুল আহমদ, পরাগ রেণু দেব, অমিত ত্রিবেদী, আরিফুল ইসলাম, হিমাংশু হিমু, হিল্লোল শর্মা, পান্না ভট্টাচার্য, শিমুল, পার্থ প্রতিম রায়।


সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমেদ চৌধুরী মিশুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্তের পরিচালনায় নাটক শেষে সমাপনী আয়োজনে উৎসব স্মারকের মোড়ক উন্মোচন করেন সিলেটের জেলা প্রশাসক।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নর্থ ইষ্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের উপাচার্য প্রফেসর ড. আতফুল হাই শিবলী, মদনমোহন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক সর্বানী অর্জুন, নাট্যজন সুনির্মল কুমার দেব মিন, নাট্য পরিষদের প্রধান পরিচালক অরিন্দম দত্ত চন্দন, পরিচালক চম্পক সরকার, সহ-সভাপতি উজ্জ্বল দাস, যুগ্ম সম্পাদক সুপ্রিয় দেব শান্ত, কোষাধ্যক্ষ ইন্দ্রাণী সেন শম্পা, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক অচিন্ত কুমার দে, নির্বাহী সদস্য দিবাকর সরকার ও ফারজানা সুমি।

জেলা প্রশাসক নাট্য প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী নাট্যদলের প্রতিটি নাটকের নির্দেশককে উত্তরীয় তুলে দেন। নাট্য প্রদর্শনী শেষে নাট্যদলকে স্মারক ও ফুলের শুভেচ্ছা প্রদান করা হয়। হলভর্তি দর্শকের উপস্থিতিতে শেষ হয় সমাপনী দিনের নাটক।  

১৭দিন ব্যাপী এই নাট্য প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছে সিলেটের ১৬টি নাট্যদল। নাট্যপ্রদর্শনী উপলক্ষে সিলেট কবি নজরুল অডিটোরিয়াম চত্ত্বরে প্রতিদিন সিলেটের নাট্যামোদী দর্শকের উপস্থিতি ও উৎসাহ এযাবতকালের সর্ববৃহৎ নাট্যপ্রদর্শনীকে প্রাণবন্ত করে তুলেছে।

১৭ দিনব্যাপী নাট্য প্রদর্শনীতে সহযোগিতা করেছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়, সিলেট সিটি করপোরেশন ও জেলা পরিষদ, সিলেট।


আপনার মন্তব্য

আলোচিত