মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেট টুডে ওয়েব ডেস্ক

২৭ জানুয়ারী, ২০১৫ ০০:৪৯

আলোচনায় অয়নাংশুর ‘বোধন’

রুপোলি পর্দায় বোধন হতে আর মাত্র কটাদিন৷ তার আগেই আরও দুটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির পালক যোগ হল ‘বোধন’-এর মুকুটে৷

 রুপোলি পর্দায় বোধন হতে আর মাত্র কটাদিন৷ তার আগেই আরও দুটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির পালক যোগ হল ‘বোধন’-এর মুকুটে৷ অয়নাংশু বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম ছবি ‘বোধন’ ইউএসের নর্থ ক্যারোলিনা গ্লোবাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে পেল সেরা ফিচার ফিল্মের সম্মান৷ সেরা অভিনেত্রীর শিরোপা পেলেন অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়৷

এর আগে বায়োস্কোপ গ্লোবাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে এ ছবির জন্য সেরা পরিচালক হয়েছিলেন অয়নাংশু৷ কলকাতায় ছবিমুক্তির আগে আরও দুটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিতে স্বভাবতই খুশি পরিচালক৷ ‘স্বীকৃতি পেলে কার না ভালো লাগে৷ আরও দুটো স্বীকৃতি এল৷ প্রথম ছবিতেই এই অ্যাচিভমেন্ট তৃপ্তি দিচ্ছে৷ সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন অর্পিতা৷ এ ছবিতে যেভাবে চরিত্রকে ফুটিয়ে তুলেছেন অর্পিতা, এ সম্মান তাঁর প্রাপ্য ছিল৷ আমি শুধু একটা কথাই বলতে পারি, আমার ছবিতে একদম অন্য অর্পিতাকে দেখবেন দর্শক’-জানালেন অয়নাংশু৷

ছবির অভিনেতা টিমকে শক্তপোক্ত করেই গড়েছেন পরিচালক৷ অর্পিতার সঙ্গেই এ ছবিতে আছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, দেবশঙ্কর হালদার, মমতাশঙ্কর, জয় সেনগুপ্ত প্রমুখ৷ কাহিনির নির্যাসটুকু অভিনয়ে ভরিয়ে দিতে তাঁরা কসুর করেননি৷ আর খোদ পরিচালকের বিশ্বাস এ ছবিতে অর্পিতাকে নতুন করে চিনবেন বাঙালি দর্শক৷ সেরা অভিনেত্রীর আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি তাঁর বক্তব্যের উপরেই সিলমোহর দিয়েছে৷

 সেরা ফিচার ফিল্মের খেতাব পাওয়া ‘বোধন’-এর ক্যাপ্টেন অফ দ্য শিপের মতে, ছবির চিত্রনাট্যই এ ছবির ইউএসপি৷ বললেন, ‘অর্পিতাও অনেক জায়গায় বলেছে, আমিও বলছি, ছবির চিত্রনাট্যই খুব আকর্ষক৷ চিরন্তন মাতৃত্বের জার্নিকে সঙ্গে নিয়েই, এ ছবি সমকালীন, যুগপোযোগী৷ আমার মনে হয় শহরের দর্শককেও নাড়া দিয়ে যাবে ছবির কাহিনি, চিত্রনাট্য৷’

ছবি যখন শুরু করেছিলেন তখন ইন্ডাস্ট্রির অলিগলিতে তিনি ছিলেন একেবারে নবাগত৷ ছবি বানানোর প্যাশনে ছেড়েছিলেন কর্পোরেট চাকরি৷ তবে নিজের কাহিনি, চিত্রনাট্যে ভরসা রেখেছিলেন৷ যাঁদের চিত্রনাট্য শুনিয়েছিলেন তাঁরা কেউই পিছপা হননি৷ নিজের সঞ্চিত অর্থ, বন্ধুবান্ধবদের এগিয়ে আসায় মিলে গেল প্রয়োজনীয়  বাজেটও৷ অবশেষে  টলিউডে বোধন হল তাঁর৷ তৈরি হল ছবি৷ আন্তর্জাতিক দুনিয়া থেকে এল স্বীকৃতিও৷ এবার সে ছবি সামনে আসতে চলেছে শহরের সিনেপ্রেমীদের কাছে৷ পরিচালকের আশা বাংলার দর্শকদের মন ছুঁতে পারবে তাঁর ছবি৷

কলকাতার রুপোলি পর্দায় ‘বোধন’-এর দিন ৩০ জানুয়ারী৷




আপনার মন্তব্য

আলোচিত