শুক্রবার, , ২২ মার্চ ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৪ মার্চ, ২০১৯ ১৫:৩০

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে যথাযোগ্য মর্যাদায় ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে প্রাইড অব মাদার টাং ইউকের উদ্যোগে মহান একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়েছে।

২৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় হাউস অব কমন্সের এই অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করেন বৃটিশ এমপি রাইট জেরান্ট ডেভিস।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে এই প্রোগ্রামে বক্তৃতা, কবিতা আবৃত্তি, ছড়া পাঠ ও একুশের গান দিয়ে অনুষ্ঠানমালা সাজানো হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রিটেনের বাংলাদেশের হাইকমিশনার হ্যার এক্সেলেন্সি সাইদা মুনা তাসনিম। সভার শুরুতেই ভাষা শহীদানদের প্রতি স্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এরপর আমন্ত্রিত অতিথিদের স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন প্রাইড অব মাদার টাং এর পেট্রন স্যার অ্যালান মিল এমপি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন হোস্ট রাইট অনারেবল জেরান্ট ডেভিস এমপি, প্রাইড অব মাদার টাং এর চেয়ারম্যান মোতাহার চৌধুরী, সেক্রেটারি জেনারেল মো. আবু তাহের এমবিই, যুক্তরাজ্যভিত্তিক গবেষণামূলক প্রতিষ্ঠান স্টাডি সার্কেলের সমন্নয়ক সাজিয়া সুলতানা স্নিগ্ধা, যুক্তরাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি আব্দুল আহাদ চৌধুরী. ব্রিটেনের কার্ডিফ।

বাংলা স্কুল কমিটির জেনারেল সেক্রেটারি সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর, সৈয়দা সাজনা আলী, জন আর্ল, আইনজীবী মারিয়া মিশেলা নিকোলা, ফাইন্যান্স কনসালট্যান্ট রয় লাকি, সাংবাদিক আনসার আহমদ উল্লাহ, সংবাদ উপস্থাপক মীর আব্দুর রহমান, চায়নিজ কম্যুনিটির চেয়ারম্যান মিসেস ইউকু টিসি, প্রফেসর ড অবি পিরি, কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব শেখ তাহির উল্লাহ, যুব সংগঠক শাহ শাফি কাদির, গোলাম আবু সালেহ সুয়েব, এম এ রউফসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

লন্ডন টাইমস নিউজের সাংবাদিক কবি আলী রেজা খান অনুষ্ঠানে স্বরচিত কবিতা আবৃত্তি করে সবাইকে বিমোহিত করেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে সূচনা সঙ্গীত পরিবেশন করেন জ্যোতি চৌধুরী।

ইংরেজি কবিতা আবৃত্তি করেন সৈয়দা তাসনিয়া তাহসিন, সৈয়দা তাসমিয়া তাহিয়া, মাহমুদা আখতার জাহান, মোহা আলী এবং ইশা সীমান্তি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্রিটেনের বাংলাদেশের হাইকমিশনার হ্যার এক্সেলেন্সি সাইদা মুনা তাসনিম উদ্যোক্তা এবং হোস্টকে ধন্যবাদ জানিয়ে বাংলা ভাষার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির বিকাশে এ ধরনের প্রোগ্রাম কমিউনিটি এবং সকল সম্প্রদায়কে একে অন্যের কাছাকাছি নিয়ে আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে সেন্ট্রাল লন্ডন ছাড়াও বিভিন্ন শহর থেকে আসা বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশের কমিউনিটির বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ ও বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত