রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

১২ মার্চ, ২০১৯ ২০:০৬

নতুন প্রজন্মের কাছে ভাষা ও সংস্কৃতি পৌঁছে দিতে নিউক্যাসলে বাংলা স্কুল চালু

ব্রিটেনের বিভিন্ন শহরে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মের কাছে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি যখন হারিয়ে যেতে বসেছে ঠিক তখন বাংলা ভাষার আলোকে ছড়িয়ে দিতে যুক্তরাজ্যের নিউক্যাসলে জালালাবাদ কালচারাল সোসাইটি চালু করেছে বাংলা স্কুল।

ভাষার মাসে ১৬ ফেব্রুয়ারি নিউক্যাসলের ইস্টল্যান্ড এলাকায় ২৪ জন ছাত্র-ছাত্রী নিয়ে বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত গেয়ে এই স্কুলের যাত্রা শুরু হয়। হিটনের স্থানীয় একটি লাইব্রেরিতে প্রতি শনিবার বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির শিক্ষা প্রদান করা হচ্ছে।

স্কুলের নবনিযুক্ত শিক্ষক আলিয়া চৌধুরী তুলি বলেন, ''জালালাবাদ কালচারাল এসোসিয়েশন বাংলা শেখানোর জন্য যে উদ্যোগ নিয়েছে 'এসো বাংলা শিখি'; এটা খুবই মহৎ উদ্যোগ। আমি এই উদ্যোগের জন্য উনাদের সাধুবাদ জানাচ্ছি এবং বাচ্চাদের বাংলা শেখানোর দায়িত্ব আমি খুব আনন্দিত এবং নিজেকে গর্বিত মনে করছি।''

জালালালাদ কালচারাল সোসাইটির চেয়ারম্যান শামীম আহমদ বলেন, প্রবাসে নতুন প্রজন্মকে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে বাংলা শেখানোর স্কুল করার উদ্যোগ নিয়েছি। দেশের বাইরে থেকেও আমাদের সন্তানরা যাতে বাংলা শিখতে পারে সে চেষ্টা করে যাব।

২৪ জন শিশু এই স্কুলের যাত্রা শুরু করলেও দিনে দিনে আরও শিক্ষার্থী এই স্কুলে যোগ দেবেন বলে প্রত্যাশা তাঁর।

উদ্বোধনের দিন ফ্রেন্ডস অফ হাই হিটনের চেয়ারম্যান অ্যাঞ্জেলা ম্যাকেঞ্জি উপস্থিত থেকে বলেন, আমরা অত্যন্ত আনন্দের সাথে জালালাবাদ কালচারাল সোসাইটিকে আমাদের লাইব্রেরিতে স্বাগতম জানাচ্ছি। বাংলা এমনি একটি ভাষা, যা আন্তর্জাতিক, যার সাথে তাদের সম্পৃক্ত এবং যোগাযোগ থাকা দরকার। কারণ আপনার ভাষা আপনার সংস্কৃতি, আপনার পরিবার, আপনার পরিবার, আপনার ধর্ম এবং আজকের দিনে এটা গুরুত্বপূর্ণ।

এ সময় সংস্থার চেয়ারম্যান শামীম আহমদ, আব্দুল হাই খান, মীর্জা মুহিবুর রহমান মুন্না, কবির আহমদ, জামিল খান, আলম হোসেন, আহমেদ আলীসহ কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ছাত্র-ছাত্রীরা বাংলা শেখানোর স্কুল নিয়ে দারুণ উচ্ছসিত। বিদেশের মাটিতে বাংলা ভাষা ও বাংলা সংস্কৃতিকে টিকিয়ে রাখতে এরকম একটি উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত