আজ রবিবার, , ২০ মে ২০১৮ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

২৪ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:৫৮

আজ কোথায় বাংলাদেশ, আর কোথায় পাকিস্তান: নরেন্দ্র মোদি

আর্থসামাজিক উন্নয়নের প্রায় সব সূচকে বাংলাদেশ যে পাকিস্তানের চেয়ে অনেক অনেক এগিয়ে গেছে, সেই কথা স্মরণ দিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

দিল্লি সফররত আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সোমবার বিকেলে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী এ প্রশংসা করেন।

শেখ হাসিনার সাহসী ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের তারিফ করে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, "একাত্তরে পাকিস্তান ভেঙে যে দেশটার জন্ম হল, তারা আজ পাকিস্তানকে ফেলে কোথায় এগিয়ে গেছে। আজ কোথায় বাংলাদেশ, আর কোথায় পাকিস্তান!"

ভারতে ক্ষমতাসীন দল বিজেপির আমন্ত্রণেই আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দল ভারত সফরে গিয়েছে। দলটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার বিকেলে আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের সময় ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, পররাষ্ট্র সচিব বিজয় কেশব গোখলে ও মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারাও হাজির ছিলেন।

আওয়ামী লীগের তরফে দলনেতা ওবায়দুল কাদের ছাড়াও মাহবুবুল আলম হানিফ, পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য, আবদুর রহমান, জাহাঙ্গীর কবীর নানক, মিসবাহউদ্দিন সিরাজ প্রমুখ নেতারা সেখানে ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন দিল্লিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলিও।

অমীমাংসিত তিস্তা চুক্তি নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের অবশ্য কোনও সুনির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতি দিতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী মোদি। শুধু বলেছেন, 'যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই চুক্তি যাতে সই করা যায়, আমি সেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।'

ভারত যে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসনের প্রস্তাবকে সমর্থন করে, সে কথাও দ্ব্যর্থহীন ভাষায় জানিয়েছেন তিনি।

যে বিজেপির আমন্ত্রণে আওয়ামী লীগ নেতাদের এই দিল্লি সফর, সেই দলের নেতাদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ প্রতিনিধিরা সোমবার সন্ধ্যায় বৈঠকে বসেন বিজেপির নতুন কার্যালেয় ভবনে।

দিল্লির দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গে অবস্থিত বিজেপি দফতরে সেই বৈঠকে বিজেপির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব, অরুণ সিং ও রামলালের মতো শীর্ষ নেতারা।

বিজেপি ভাইস-প্রেসিডেন্ট বিনয় সহস্রবুদ্ধে বলেন, "বিজেপি যে পার্টি-টু-পার্টি কনট্যাক্ট বা দলীয় স্তরে সংযোগকে কতটা গুরুত্ব দেয়, আওয়ামী লীগকে ভারতে আমন্ত্রণ জানানোর মধ্যে দিয়েই সেটা স্পষ্ট।"

বস্তুত বাংলাদেশে এই নির্বাচনের বছরে দিল্লিতে আওয়ামী লীগ প্রতিনিধিদলের সফরকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে নানা মহলেই।

আর এই সফরে প্রধানমন্ত্রী মোদী আওয়ামী লীগ নেতাদের সামনে যেভাবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করলেন, সেটাকেও রীতিমতো তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত