সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৯ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:৩৬

সিলেটের পর এবার রাজশাহীতেও ‘বখাটে স্টাইলে’ চুল না কাটার নির্দেশ

ছাত্র, তরুণ ও যুবকদের চুল-দাড়ি 'বখাটে ও মডেলিং' স্টাইলে না কাটতে গত ২৯ জুলাই সেলুন মালিকদের নির্দেশ দিয়েছিলেন সিলেটের কানাইঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল আহাদ। সিলেটের পর এবার রাজশাহীর বাঘা উপজেলায়ও সেলুন মালিকদের প্রতি একই নির্দেশনা জারি করেছে বাঘা উপজেলা ও পৌর প্রশাসন।

একইসাথে কোনো ব্যক্তি যদি এই নির্দেশ অমান্য করে তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

সোমবার (১৯ আগস্ট) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) সম্মেলন কক্ষে উপজেলার সব সেলুন ব্যবসায়ীকে নিয়ে বৈঠক করে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাঘার ইউএনও শাহিন রেজা, বাঘা পৌর মেয়র আব্দুর রাজ্জাক, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলামসহ উপজেলা সেলুন (শীল সমিতি) সমিতির আওতায় থাকা ৬৫ জন সদস্য।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, ছাত্র ও উঠতি বয়সের তরুণ-যুবাসহ যে কারও মডেলিং স্টাইলে চুল কাটাসহ দাড়ি ও গোঁফ রঙ না করার বিষয়ে সেলুন মালিকদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। হেয়ার স্টাইলের কোনো ক্যাটালগ দোকানে না রাখার জন্যও বলা হয়েছে।

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, মডেলদের অনুকরণে স্টাইল করে চুল, দাড়ি ও গোঁফ কাটার বিষয়ে প্রায় সময়ই ছাত্র ও যুবকদের অভিভাবক ও শিক্ষকরা মৌখিকভাবে অভিযোগ করেন। যেসব ছাত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা সবাই সপ্তম থেকে একাদশ শ্রেণির ছাত্র। ছাত্র ও উঠতি বয়সের যুবকদের 'বখাটে স্টাইলে মডেলিং করে' চুল না কাটার জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। 'বখাটে স্টাইলে' চুল কাটার পোস্টারও সেলুন থেকে সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে।

ইউএনও শাহিন রেজা বলেন, উপজেলা সেলুন সমিতির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ সমিতির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যারা এই সিদ্ধান্ত অবজ্ঞা করে 'বখাটে স্টাইলে' চুল-দাড়ি কাটবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা সেলুন (শীল সমিতি) সমিতির সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু বলেন, 'প্রশাসনের নির্দেশনায় আমরা স্টাইল করে চুল, দাড়ি ও গোঁফ কাটা বন্ধ করে দিয়েছি। স্বাভাবিকভাবে চুল কাটাতে কেউ রাজি না হলে প্রশাসনকে জানাতে বলা হয়েছে।'

আপনার মন্তব্য

আলোচিত