রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯ ইং

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

১৫ মে, ২০১৯ ১৫:৫৩

মৌলভীবাজারে তিন কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ, মামলা

মৌলভীবাজারের একটি ছাত্রী মেসের তিন কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ অভিযোগে সাত যুবকের বিরুদ্ধে মৌলভীবাজার মডেল থানায় মামলা করা হয়েছে। গত সোমবার (১৩ মে) বিকেলে শহরের সোনাপুর বড়বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে বুধবার (১৫ মে) সিলেটটুডেকে জানান মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি আলমগীর হোসেন।

তিনি জানান, ঘটনার দিন রাতেই শ্লীলতাহানির শিকার এক কলেজ ছাত্রীর মামা নারী শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধিত) ২০০৩-এর ১০/৩০ এই ধারায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হচ্ছে নাভেদ,সায়েম, মুন্না, লোকমান অজ্ঞাত ৩ জন। এখনো কোন আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তবে আসামীদের গ্রেপ্তারে মৌলভীবাজার থানা পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ ও থানায় দায়েরকৃত মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, মৌলভীবাজার শহরের সোনাপুর বড়বাড়ি শফিকুর রহমান শফিকের বাড়িতে ভাড়াটিয়া (মেস) থাকতেন মৌলভীবাজার সরকারী মহিলা কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের ১ শিক্ষার্থী ও সরকারী মহিলা কলেজের অনার্স ৩য় বর্ষের ২ শিক্ষার্থীসহ কয়েকজন ছাত্রী।

এদিকে কলেজে আসা-যাওয়ার তাদের পথে গতিপথ রোধ করে প্রেম প্রস্তাব, নানা অশ্লীল কথা ও অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে তাদের উত্ত্যক্ত করত বাড়ির মালিকের ভাতিজা ও একই এলাকার বাসিন্দা নাভেদসহ (১৮), সায়েম (২৪), মুন্না (২২) ও লোকমান (২৪)।

সোমবার বিকেলে কলেজের ইনকোর্স পরীক্ষা দিয়ে বাসায় ফেরার পথে বাসায় ঘরে প্রবেশের পূর্বে বাসার উঠানে বসে থাকা নাভেদ আহমদ তার সহযোগী সায়েম, মুন্না ও লোকমান  কলেজ ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে নানা অশ্লীল কুরুচিপূর্ণ কথাবার্তা বলতে থাকে। এক পর্যায়ে অভিযুক্তদের সাথে বাকবিতণ্ডার জেরে হাতাহাতি বাধে দুই পক্ষের।

পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন।

এদিকে অবিলম্বে দোষীদের শাস্তির দাবী জানিয়েছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত