সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি

২০ আগস্ট, ২০১৯ ১৭:৫৭

পিতার অভিযোগে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল কিশোরী

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে পিতার অভিযোগের ভিত্তিতে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরী।

সোমবার (১৯ আগস্ট) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা পালের হস্তক্ষেপে এ বাল্যবিয়ে ভেঙ্গে দেওয়া হয়।

জানা যায়, শান্তিগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাগ ইউনিয়নের মুক্তাখাই গ্রামে এই কিশোরীকে তার মা জোর করে বিয়ে দিচ্ছেন বলে জামালগঞ্জ ইউএনওর নিকট অভিযোগ দায়ের করেন কিশোরীর পিতা।

এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা পাল, ভীমখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো. দুলাল মিয়া ও ইউপি সচিব গুনেন্দ্র তালুকদারকে এ বিয়ে বন্ধের নির্দেশ দেন।

পরে চেয়ারম্যান ও সচিব গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে বিয়ে বাড়িতে হাজির হন। বর ও বরপক্ষের উপস্থিতিতে প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত এই বিয়ে দিবেন না বলে দুই পক্ষের অভিভাবকদের মুচলেকায় স্বাক্ষর নেন ভীমখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো. দুলাল মিয়া ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা পাল এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত