বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ ইং

কুলাউড়া প্রতিনিধি

০৭ নভেম্বর, ২০১৯ ১৯:১৫

কুলাউড়ায় বিপন্ন প্রজাতির গুই সাপ পিটিয়ে হত্যা

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার চৌধুরীবাজার এলাকায় লোকালয়ে আসা বিপন্ন প্রজাতির একটি গুই সাপকে পিটিয়ে হত্যা করার খবর পাওয়া গেছে।

বুধবার (৬ নভেম্বর) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের চৌধুরীবাজারে অবস্থিত একটি পেট্রোল পাম্পের পেছনে গুই সাপটিকে দেখতে পেয়ে লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক মাস ধরে চৌধুরী বাজারের পার্শ্ববর্তী উত্তম মল্লিকের বাড়ির পুকুরের আশেপাশে একটি গুই সাপ দেখতে পান ওই বাড়ির লোকজন। প্রায়ই বাড়ির আশেপাশে চলাফেরা করতো গুই সাপটি। এতে বাড়ির লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। বুধবার সন্ধ্যায় ওই বাড়ির বাসিন্দা উত্তম মল্লিক আবারো পুকুর পাড়ে দেখতে পেয়ে তিনি লাঠিসোটা নিয়ে ধাওয়া করেন গুই সাপটিকে।

ধাওয়া খেয়ে গুই সাপটি বাড়ির সামনে বাজারের আকবর আলী আকুল মালিকানাধীন একটি পেট্রোল পাম্পের পাম্পের পিছনে আসে। এসময় উত্তমসহ একাধিক লোক লাঠিসোটা দিয়ে পেটাতে থাকেন ওই সাপটিকে। এতে সাপটি মারা যায়। পরে স্থানীয় বাঘাজুরা গ্রামের বাসিন্দা সিএনজি অটোচালক একটি পলিথিনের বস্তায় ভরে মৃত গুই সাপটিকে নিয়ে যান। উত্তম মল্লিকের বাড়িতে মৃত গুই সাপটির বাচ্চা রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কুলাউড়ার গাজীপুর বন বিট কর্মকর্তা রিয়াজ উদ্দিন বলেন, ঘটনাটি আমরা খবর পাইনি। এখন যেহেতু খবর পেয়েছি আমি খোঁজ নিচ্ছি। বাচ্চা যদি থাকে সেগুলো উদ্ধার করার চেষ্টা করছি।

তিনি আরও বলেন, গুই সাপ এখন অনেকটা বিপন্ন। বাড়ির আশেপাশে ঝোপঝাড়ে এদের বাস। গহীন বনে এরা থাকে না। গুই সাপ কখনো মানুষের ক্ষতি সাধন করেনা। ব্যাঙ, মাছ, মোরগ-হাঁস, শামুক এদের প্রধান খাবার।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত