Advertise

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৫ মে, ২০২০ ০২:৩২

দুই বাংলার চলচ্চিত্র নিয়ে মিথিলা

করোনার প্রতিকূলতার মধ্যেও শিল্পসৃষ্টি থেমে নেই। সৃজনশীল কাজ চলছেই। লকডাউনে তৈরি শিল্পে যুক্ত হলো ইন্দো-বাংলাদেশের ছোট ছবি ‘দূরে থাকা কাছের মানুষ’। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ছবিটি।

এখানে রয়েছে মিষ্টি একটি প্রেমের গল্প। এর প্রধান দু’টি চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও কলকাতার বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। মিথিলার চরিত্রের নাম বন্যা ও বিক্রমকে দেখা যাচ্ছে দীপ্ত নামের চরিত্রে।

শর্টফিল্মের পরিচালনায় শাহরিয়ার পলক। গল্প লিখেছেন অভ্র চক্রবর্তী। ছবিটির প্রযোজনায় টিভিওয়ালা মিডিয়া (কলকাতা) ও প্রেক্ষাগৃহ ভিস্যুয়াল ফ্যাক্টরি প্রোডাকশন (ঢাকা)।

করোনা পরিস্থিতিতে ছবিটির সঙ্গে থাকা প্রত্যেকে পারিশ্রমিক ছাড়া যুক্ত হয়েছেন এই সংগ্রামে। এবং শর্টফিল্ম থেকে সংগ্রহীত অর্থ ঢাকা সিনে-শ্রমিক ও কলকাতা সিনেমা-শ্রমিকদের কল্যাণ তহবিলে অনুদান দেওয়া হবে বলে জানা গেল।

ছবিতে দেখা যাবে যুবক দীপ্ত লন্ডনে থাকে। ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া নিয়ে গবেষণা করে। এখন কলকাতায় এসেছে। আইসোলেশনে রয়েছে। অন্যদিকে বন্যা থাকে বাংলাদেশে। যার পড়াশোনা শান্তিনিকেতনে। সে পেশায় সাংবাদিক। গায়িকা হিসেবেও যথেষ্ট সুনাম তার। ১৪ বছর পর স্কাইপে যোগাযোগ হচ্ছে তাদের। খুলে যাচ্ছে একটার পর একটা স্মৃতির পাতা। ভারী সুন্দর লাগে দীপ্ত আর বন্যার কথোপকথন।

মিথিলার স্ক্রিন প্রেজেন্স এবং কণ্ঠস্বরে একটা মাধুর্য আছে। সেটা ছোট ছবিটির অন্যতম আকর্ষণ। ভাল লাগে বিক্রমের সহজ সুন্দর অভিনয়। তারপর কী হয়, তার জন্য ছবিটা দেখতে হবে।

মিথিলা এই ছবিটি নিয়ে বেশ প্রত্যাশী। তার দাবি, ছবিটি লকডাউনের একঘেয়েমি জীবনে ভিন্ন স্বাদ দেবে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত