www.sylhettoday24.news বড়লেখায় পলিথিন জব্দের জেরে সংঘর্ষ: প্রধান আসামি সাইদুল কারাগারে

বড়লেখা প্রতিনিধি

০৯ জুলাই, ২০২০ ২১:৪৮

বড়লেখায় পলিথিন জব্দের জেরে সংঘর্ষ: প্রধান আসামি সাইদুল কারাগারে

দুটি মামলায় ৩ দিন করে রিমান্ডের আবেদন

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পলিথিন আটকের জেরে দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো প্রধান আসামি সাইদুল ইসলামকে (৩৮) গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে বড়লেখা জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম (ম্যাজিস্ট্রেট) আদালতে সাইদুলকে হাজির করা হলে আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।  

এদিকে মামলার মূলরহস্য উদঘাটনের লক্ষ্যে সাইদুলকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পৃথক দুটি মামলায় ৩ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। বড়লেখা জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের (ম্যাজিস্ট্রেট) ভার্চ্যুয়াল আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বড়লেখা থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. শরীফ উদ্দিন এই আবেদন করেন। রিমান্ড আবেদনের উপর এদিন শুনানি হয়নি। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত বুধবার (৮ জুলাই) রাত সাড়ে নয়টার দিকে পুলিশ হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাইদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বাড়ি বড়লেখা পৌরসভার আইলাপুর গ্রামে। তিনি এই গ্রামের মৃত আব্দুল খালিকের ছেলে।

বিজ্ঞাপন



থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত ১ জুলাই পৌর শহরে ৭০ মণ পলিথিন জব্দের জের ধরে ২ জুলাই সকালে বড়লেখা পৌরশহরের উত্তর বাজার এলাকায় একজনের উপর হামলা ও পরে দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের ঘটনায় আহত শামীম আহমদ বাদী হয়ে ১৮ জনের ও জসিম উদ্দিন বাদী হয়ে ১৫ জনের নামোল্লেখ করে থানায় পৃথক দুটি মামলা করেন। দুটি মামলায় বাদীরা ঘটনার সময় প্রকাশ্যে আগ্নেআস্ত্রসহ হামলার অভিযোগ এনে শাহজালাল শপিং সিটির অংশীদার সাইদুল ইসলামকে প্রধান আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলার পরই পুলিশ ৩জনকে গ্রেপ্তার করে। এরপর থেকে সাইদুল ইসলাম পলাতক ছিলেন। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ সিলেটসহ বিভিন্নস্থানে অভিযান চালায়।

বুধবার (০৮) জুলাই পুলিশ খবর পায় আসামি সাইদুল ইসলাম হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলায় অবস্থান করেছেন। খবর পেয়ে বুধবার রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) সাদেক কাউসার দস্তগীর ও বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে সাইদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে।

বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক বলেন, ‘সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় দায়ের করা দুটি মামলার প্রধান আসামি সাইদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার আদালতে পাঠানো হয়। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মামলার মূলরহস্য উদঘাটনের লক্ষ্যে তাকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পৃথক দুটি মামলায় ৩ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। তবে রিমান্ড আবেদনের উপর শুনানি হয়নি।’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত