নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ জুলাই, ২০২০ ২২:২৯

সিলেটে স্টোন ক্রাশার মেশিনের বিরুদ্ধে অভিযান, কোটি টাকার যন্ত্রপাতি ধ্বংস

সিলেটে অবৈধ বালু-পাথর ব্যবসায়ী এবং অবৈধ স্টোন ক্রাশার মেশিন স্থাপনকারীদের রিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর ও সিলেট জেলা প্রশাসন। অভিযানে প্রায় এক কোটি ১২ লাখ টাকার যন্ত্রপাতি ধ্বংস করা হয়েছে।

আজ সোমবার (১৩ জুলাই) সিলেটের কদমতলী ফেরিঘাট, কুচাই ও মিরেরচক-মুক্তিরচক এলাকার সুরমা নদীর দুই পাড়ে অবৈধভাবে পাথর পরিবহন করা এবং অবৈধভাবে স্থাপিত স্টোন ক্রাশার মেশিন স্থাপনকারীদের বিরুদ্ধে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। সিলেট জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মেজবাহ উদ্দিন অভিযানে নেতৃত্ব দেন। সহযোগিতায় ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় অফিসের পরিচালক মোহাম্মদ এমরান হোসেন।

অভিযানকালে অবৈধভাবে পাথর পরিবহন করায় দুইটি বাল্কহেড জাহাজ বিকল করা হয় এবং ৩০টি ডিজেল ইঞ্জিন, ২৩টি ছোট-বড় ক্রাশার মেশিন ও মেশিন সংশ্লিষ্ট আনুষাঙ্গিক যন্ত্রপাতি ধ্বংস করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় এক কোটি ১২ লাখ টাকা। এ সময় আনুমানিক ১ লাখ ৩০ হাজার ঘনফুট/সিএফটি পাথর জব্দ করা হয়। যা উন্মুক্ত নিলামের মাধ্যমে বিক্রয় করা হবে।

সিলেট জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মেজবাহ উদ্দিন জানান, বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ (সংশোধিত-২০১০) ও স্টোন ক্রাশিং নীতিমালা-২০০৬ (সংশোধিত-২০১৩) অনুযায়ী এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়ে। এ সময় আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন সিলেটের জওয়ানদের একটি দল এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সিলেটের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, ‘সিলেট জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর, সিলেট বিভাগীয় অফিসের সমন্বয়ে এ জাতীয় অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত