COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

164

Confirmed Cases

17

Deaths

33

Recovered

1,361,598

Cases

76,315

Deaths

293,654

Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২০ ০১:৩৮

আমরা সবকিছুতে দলবাজি করি : মুহিত

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, আমরা সবকিছুতেই দলবাজি করি। সংকীর্ণ দলীয় স্বার্থ থেকে বেরোতে পারি না। এটা খুবই খারাপ। তবে ভাষাসৈনিক সম্মাননার অনুষ্ঠানে দলবাজি মোটেও লক্ষণীয় ছিল না। এটা খুবই ভালো কাজ।

রোববার রাতে সিলেটে ভাষা সৈনিকদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে ভাষাসৈনিক হিসেবে সম্মাননা গ্রহণের পর প্রতিক্রিয়ার এমনটি বলেন তিনি। নগরীর একটি হোটেলের বলরুমে এই সিলেটের ৭ ভাষাসৈনিককে সম্মাননা প্রদানের এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সিলেট সিটি করপোরেশন ও সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এতে মুহিত আরও বলেন, আজ যে সাতজনকে সম্মাননা জানানো হলো তাদের মধ্যে আমিই একমাত্র জীবিত। তবে মরণোত্তর সম্মাননাপ্রাপ্ত বাকি ছয়জনকে আমি ভালো করে চিনতাম। এরমধ্যে সাইফুর রহমান ও ছদরুদ্দিন চৌধুরী আমার সহপাঠী ছিলেন। আর সবার চেয়ে বর্ণিল চরিত্র ছিলো আব্দুস সামাদ আজাদের। এদের সাথে এই সম্মাননা পেয়ে আমি গর্বিত।

তিনি বলেন, সম্মাননা প্রদানের এই উদ্যোগ অত্যন্ত মহৎ। এটি অব্যাহত রাখা প্রয়োজন।

এরআগে আবুল মাল আবদুল মুহিতের হাতে ক্রেস্ট সম্মাননা স্মারক ও উপহার সামগ্রী তুলে দেন জাতীয় অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী ও সাবেক রাষ্ট্রদূত, কবি মোফাজ্জল করিম, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী, সিলেটটুডে’র প্রধান সম্পাদক কবির য়াহমদ ও সম্পাদক আব্দুল আলিম শাহ।

মুহিত ছাড়াও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুস সামাদ আজাদ (মরণোত্তর), সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান (মরণোত্তর), শিক্ষাবিদ ড. ছদরুদ্দিন আহমদ চৌধুরী (মরণোত্তর), অ্যাডভোকেট মনির উদ্দিন আহমদ (মরণোত্তর), কমরেড আসাদ্দর আলী (মরণোত্তর) ও ডা. মো. হারিছ উদ্দিন (মরণোত্তর)-কে এই অনুষ্ঠানে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

এই ছয়জনের পক্ষে তাদের পরিবারের সদস্যরা সম্মাননা গ্রহণ করেন। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুস সামাদ আজাদের পক্ষে তার পুত্র আজিজুস সামাদ ডন, সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের পরিবারের পক্ষে অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান, শিক্ষাবিদ ড. ছদরুদ্দিন আহমদ চৌধুরীর পক্ষে তার মেয়ে অধ্যাপক ড. নাজিয়া চৌধুরী, অ্যাডভোকেট মনির উদ্দিন আহমদের পক্ষে আবু সালেহ মো. নাইম, কমরেড আসাদ্দর আলীর পক্ষে পরিবারের সদস্য নাফিজা খানম আশা এবং ডা. মো. হারিছ উদ্দিনের পক্ষে তার পুত্র ডা. সালেহ আহমদ আলমগীর সম্মাননা গ্রহণ করেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত