বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

২৫ মে, ২০১৯ ১৬:৫৭

শাবানা আজমিকে ভারত ছাড়ার পরামর্শ

বিতর্কের শুরু কয়েক মাস আগে। দ্য ওয়ালের প্রতিবেদন অনুযায়ী ভারতের লোকসভা নির্বাচনের আগ দিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গেছে ভারতের অভিনেত্রী শাবানা আজমিকে। এমনকি লোকসভা নির্বাচনে বেগুসরাইয়ের সিপিআই প্রার্থীর হয়ে প্রচারণা চালাতে দেখা গেছে তাঁকে। এমন সময় হঠাৎ খবর রটল, শাবানা আজমি বলেছেন, নরেন্দ্র মোদি আবারও ক্ষমতায় এলে তিনি নাকি ভারত ছাড়বেন। কেননা, তাঁর বিশ্বাস, বিজেপি ক্ষমতায় থাকলে ভারতের ধর্মনিরপেক্ষতা হুমকির মুখে পড়বে।

হিটলারের তথ্যমন্ত্রী জোসেফ গোয়েবলসের নিয়ম মেনে সত্যের সঙ্গে মিথ্যা মেশানো এই গুজব বারবার গণমাধ্যমে প্রচার করায় মানুষ তা সত্য বলে বিশ্বাস করে। এরপর শাবানা আজমি যতবার বলেছেন এগুলো প্রোপাগান্ডা, মিথ্যা, গুজব, তাতে কান দেয়নি কেউ। বাধ্য হয়ে শাবানা টুইট করেন, ‘আমি কখনো এমন কথা বলিনি। আমার এ রকম কোনো অভিপ্রায়ও নেই। আমি ভারতে জন্মেছি। আর এখানেই আমার মৃত্যু হবে।’ কিন্তু তাতে তেমন লাভ হয়নি। মানুষ যা বিশ্বাস করার করেছে।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ইতিহাস গড়ে ২০১৪ সালের চেয়েও বেশি ভোট আর আসন পেয়ে ফিরে এসেছে বিজেপি। এরপর পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া শাবানা আজমিও নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানাতে হাতে তুলে নিয়েছেন টুইটার। লিখেছেন, ‘এটা জনগণের ইচ্ছার শক্তিশালী প্রতিফলন। নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপি–সমর্থিত এনডিএকে অভিনন্দন।’

এখানেই মন্তব্যে অনেকে শাবানা আজমিকে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন, ‘নরেন্দ্র মোদি তো প্রধানমন্ত্রী হলেন। এবার আপনার পাকিস্তান যাওয়ার পালা।’ ‘তাহলে ভারত ছাড়ছেন কবে?’ ইত্যাদি।

অথচ ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় গত ১৪ ফেব্রুয়ারির পাকিস্তানের আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার পর সরব হন শাবানা আজমি। পাকিস্তানি শিল্পীদের ভারতে কাজ করা নিয়েও প্রকাশ্যে আপত্তির কথা জানান। গত বছর ৫ সেপ্টেম্বর বেঙ্গালুরুতে নিজের বাড়ির সামনে সাংবাদিক গৌরী লঙ্কেশ খুন হওয়ার পরও সরব হয়েছিলেন এই বলিউড তারকা। ইসলাম ধর্মের তিন তালাকের বিরুদ্ধে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন তিনি। অথচ তাঁকে এখন ভারত ছেড়ে পাকিস্তানের যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে শাবানা আজমি অভিযোগ করেছে, ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’ ছবিতে ইচ্ছে করে এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে গীতিকার হিসেবে তাঁর স্বামী জাভেদ আখতারের নাম ব্যবহার করেছেন নির্মাতারা। অথচ গীতিকার জাভেদ আখতার ওই ছবির জন্য কোনো গান লেখেননি। তবুও ছবির ট্রেলারের শেষে গীতিকার হিসেবে তাঁর নাম দেখানো হয়েছে।

জানা গেছে, ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’ ছবিতে যে গানটি ব্যবহার করা হয়েছে, সেই ‘ঈশ্বর আল্লাহ তেরে জাহাঁ মেঁ’ গানটি জাভেদ আখতার ‘নাইন্টিন ফোরটি সেভেন: দ্য আর্থ’ ছবির জন্য লিখেছিলেন। গানটিতে সুর করেন এ আর রহমান। ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৯ সালে।


আপনার মন্তব্য

আলোচিত