শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৭:৪৭

রওশন বিরোধীদলীয় নেতা, জি এম কাদের উপনেতা

প্রজ্ঞাপন জারি

জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদকে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জি এম) কাদেরকে উপনেতা করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

গত কয়েক দিন দেবর-ভাবির মধ্যে স্নায়ুযুদ্ধ চলছিল, কে হবেন বিরোধীদলীয় নেতা। এ নিয়ে অনেক নাটকীয়তার পর দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেবর জি এম কাদেরের পরিবর্তে ভাবি রওশন এরশাদকে ওই পদ দেওয়ার জন্য রোববার সন্ধ্যায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর কাছে চিঠি দেওয়া হয়। আর জি এম কাদেরকে বিরোধীদলীয় উপনেতা করার জন্য স্পিকারকে অনুরোধ করা হয়।

এ নিয়ে সোমবার প্রজ্ঞাপন জারি করে সংসদ সচিবালয়। সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, “জাতীয় সংসদে সরকারি দলের বিরোধিতাকারী সর্বোচ্চ সংখ্যক সদস্য নিয়ে গঠিত সংসদীয় দলের নেতা বেগম রওশন এরশাদকে (ময়মনসিংহ-৪) জাতীয় সংসদের কার্যপ্রণালী বিধি (২)(১)(ট) অনুযায়ী বিরোধী দলের নেতা এবং ‘বিরোধীদলীয় নেতা এবং উপ-নেতা (পারিতোষিক ও বিশেষাধিকার) অধ্যাদেশ, ১৯৭৯’ মোতাবেক লালমনিরহাট-৩ হইতে নির্বাচিত সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ কাদেরকে বিরোধীদলীয় উপনেতা হিসেবে মাননীয় স্পিকার স্বীকৃতি প্রদান করিলেন।”

এর আগে রোববার সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে রওশন এরশাদকে বেছে নেয় জাতীয় পার্টি। গতকাল সংসদ ভবনে জাতীয় পার্টির সংসদীয় বোর্ডের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভা শেষে পার্টির মহাসচিব ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা সাংবাদিকদের বলেন, ‘পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের রওশনকে বিরোধীদলীয় নেতার স্বীকৃতি দিয়ে স্পিকারকে চিঠি দিয়েছেন।’

সভায় উপস্থিত জাতীয় পার্টির ২৫ জন সদস্য রওশন এরশাদকে বিরোধীদলীয় নেতা বানানোর ব্যাপারে একটা ঐকমত্যে পৌঁছেন।

‘আর জি এম কাদের পার্টির চেয়ারম্যানের বিভিন্ন দায়িত্ব-কর্তব্য পালন করবেন,’ যোগ করেন মহাসচিব রাঙ্গা।

গত শনিবার রাতের বৈঠক প্রসঙ্গে রাঙ্গা বলেন, ‘রাতে রাজধানীর একটি হোটেলে বৈঠকে বসা হয়েছিল। সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে রওশন এরশাদ বিরোধীদলীয় নেতা হবেন এবং জি এম কাদের পার্টির চেয়ারম্যান হবেন। তবে অন্য পদগুলো দলীয় কাউন্সিলের মাধ্যমে দেওয়া হবে।’

রংপুর-৩ আসনের আসন্ন উপনির্বাচন প্রসঙ্গে জাপা মহাসচিব বলেন, এ ব্যাপারে সব দায়িত্ব জি এম কাদেরকে দেওয়া হয়েছে এবং তিনি এরশাদপুত্র রাহগীর আল মাহি ওরফে সাদ এরশাদকে বেছে নিয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে রাঙ্গা জানান, বিরোধীদলীয় উপনেতা হিসেবে বেছে নেওয়ার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে ‘দলের মতপার্থক্য দূর হয়েছে’ বলে দাবি করেন তিনি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত