বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৬ জুলাই, ২০১৯ ১৬:১১

আমরা কমিশন খাওয়ার দেশ: মেনন

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, পাথর‌কে ভালোভা‌বে প্রক্রিয়াজাত কর‌লে আমরা বি‌দে‌শে রপ্তা‌নি কর‌তে পারতাম। কিন্তু আমরা‌ তো সে দেশ নই। আমরা তো ক‌মিশন খাওয়ার দেশ। আমা‌দের না‌কি ওয়াটার বো‌টে ক‌রে বি‌দেশ থে‌কে পাথর আমদা‌নি কর‌তে হ‌বে।

শ‌নিবার (৬ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লা‌বে বাংলা‌দেশ কো‌রিয়া ফ্রেন্ড‌শিপ অ্যান্ড সো‌লিডা‌রি‌টি ক‌মি‌টি আয়োজিত উত্তর কো‌রিয়ার সা‌বেক প্রে‌সি‌ডেন্ট কিম ইল সাংয়ের স্মরণ সভায় এ মন্তব্য ক‌রেন তি‌নি।

‌তি‌নি ব‌লেন, উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থে‌কে দিনাজপু‌রের মধ্যপাড়ায় পাথর উত্তোল‌নের জন্য একটা প্রজেক্ট ক‌রা হ‌য়েছি‌ল। সে সময় তারা অনেক সমস্যায়, জ‌টিলতায় প‌ড়ে‌ছিল। আমি এ কথাগু‌লো বিএন‌পি সরকা‌রের তৎকালীন অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানকে ব‌লে‌ছিলাম।

তি‌নি হে‌সে বলে‌ছি‌লেন, 'ওটা একটা ফ‌কি‌রের দেশ। এরা আবার আমা‌দের এখা‌নে কী ক‌রবে?’ সেই  উত্তর কোরিয়া আমা‌দের দে‌শের মা‌টির গভীর থে‌কে পাথর উত্তোলন ক‌রে‌ছে।'

তিনি আ‌রও ব‌লেন, ‘যখন মার্কিন প্রে‌সি‌ডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বল‌লেন উত্তর কো‌রিয়া‌কে নি‌শ্চিহ্ন ক‌রে দেও, তখনও বাংলা‌দে‌শের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কোনও প্রতি‌ক্রিয়া দেখায়নি। কারণ, জা‌তিসং‌ঘের নি‌ষেধাজ্ঞা আছে। ট্রা‌ম্পের কথায় যুদ্ধ হ‌লে, আমা‌দের অস্তিত্ব কি থাক‌তো? আমরা সব‌কিছু কর‌তে পার‌ছি, বুঝ‌তে পার‌ছি, কিন্তু উত্তর কো‌রিয়ার বিষ‌য়ে কোনও কথা বল‌ছি না। বাংলা‌দেশকে শা‌ন্তিকামী দেশ হি‌সে‌বে উত্তর কো‌রিয়ার পা‌শে দাঁড়া‌তে হ‌বে।’

‌অনুষ্ঠা‌নে বাংলা‌দেশ কো‌রিয়া ফ্রেন্ড‌শিপ অ্যান্ড সো‌লিডা‌রি‌টি ক‌মি‌টির সভাপ‌তি হারুন অর র‌শিদ, কো‌রিয়ার ডি‌পিআর রাষ্ট্রদূত পাক সং ইয়প, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মেসবাহ কামাল এবং অর্থনীতিবিদ ড. অশোক গুপ্ত প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত