সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০২:০৮

আমরা ষড়যন্ত্রের শিকার: শোভন

নিজেরা ষড়যন্ত্রের শিকার বলে মন্তব্য করেছেন ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

নানা অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের পদ থেকে শনিবার পদত্যাগে বাধ্য করা হয় রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও গোলাম রব্বানীকে। নতুন দু'জনকে তাদের স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে।

এসব অভিযোগ প্রসঙ্গে একটি অনলাইন গণমাধ্যমকে রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ‘ইতিহাসে নেত্রী শেখ হাসিনা যাকে বেশি ভালোবাসছেন সে কিন্তু টিকে নাই, তাকে বা তাদেরকে বিভিন্ন ব্লেইম দিয়ে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে নেত্রীর কাছ থেকে। আমরাও কিন্তু ষড়যন্ত্রের শিকার।’

শোভন বলেন, ‘একটা সাধারণ মানুষও বুঝে যে কারো যদি নেশা করতে ইচ্ছা করে, অনেক জায়গা আছে, পার্টি অফিসে কেন নেশা করবে? আমরা যখন যাই আমাদের সাথে নেতাকর্মীর বেষ্টনী দেওয়া থাকে, আমরা কি একাকি থাকতে পারি? আমাদের চারপাশে অনেক লোক থাকে। আর মদের যে বিষয়টা আসছে, মদ খেতে তো একটা পরিবেশ লাগে ভাই। মদ খেয়ে কেউ কোনো দিন সুস্থ থাকতে পারে? মাতলামি করবেই। পার্টি অফিস কি এ রকম জায়গা? নতুন পার্টি অফিসে একমাত্র আমরাই শুধু জায়গা পেয়েছি, আর কোনো সংগঠন কিন্তু পায়নি। যুবলীগ, এমন কি আওয়ামী লীগের কোনো লোক কিন্তু ওই খানে বসে নাই। বসছে শুধু ছাত্রলীগই। এ বিষয়টা নিয়ে অন্যান্যা যে অঙ্গ সংগঠনগুলো আছে সেগুলোতে একটু …ছাত্রলীগকে দিল আমাদেরকে দিল না। আরেকটি বিষয় হলো পার্টি অফিস যখন কারো আন্ডারে না থাকে, বন্ধ থাকে। তখন কিন্তু ঢাকার শহরে এ রকম একটা জায়গায় এমন একটা বিল্ডিংয়ে অনেক কিছু ঘটে আমরা শুনেছি। পার্টি অফিসের ভেতরে গুলিস্তানের যারা ব্যবসায়ী আছে, তারা বিভিন্ন রকম কর্মকাণ্ড করে আর কি, আড্ডা দেয়। এ বিষয়গুলো নিয়ে আমাদের যেন পার্টি অফিসটা না দেওয়া হয়, বন্ধ করে দেওয়া হয় এ জন্য অনেকে গেইম খেলছে।’

শোভন আরো বলেন, ‘আমাদের একটা বিশাল অংশ আছে, তারা চায় না আমরা সফল হই, সব সময় আমাদের বিতর্কিত করতে চেষ্টায় আছে সেটা বর্তমান মিডিয়া দেখলেই বুঝতে পারবেন। মিডিয়াতে ছাত্রলীগ ছাড়া কোনো কথা নাই। এমনটা হওয়ার কথা ছিল না।’

এরআগে ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ড নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই নিজের অবস্থান তুলে ধরে গত বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি দিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। চিঠিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাধারণ সম্পাদক (জিএস) গোলাম রাব্বানী তাঁর বিরুদ্ধে আসা নানা অভিযোগ খণ্ডনের পাশাপাশি নিজেদের ভুলগুলো ক্ষমা করে দেওয়ার জন্য বলেছেন। একইসঙ্গে ‘আস্থার প্রতিদান দেওয়ার জন্য’ পুনরায় সুযোগও চান।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত