মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ইং

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

০৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১৬:৪৭

বরখাস্তের আদেশ বাতিল করে প্রভাষক মাহবুবুরকে স্বপদে পুনর্বহালের নির্দেশ

নগরীর মইন উদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক মো. মাহবুবুর রউফের বরখাস্তের আদেশ বাতিল করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। একই সাথে তাকে স্বপদে পূণর্বহালের নির্দেশ দিয়ে তার বকেয়া বেতন-ভাতাদি প্রদানের জন্য মঈন উদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

গত মাসের ২২ অক্টোবর (মঙ্গলবার) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর কলেজ পরিদর্শক (ভারপ্রাপ্ত) ড. মো. মনিরুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক আদেশে মইন উদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. গিয়াস উদ্দিনকে এ নির্দেশ প্রদান করা হয়।

আদেশে আরও উল্লেখ করা হয়- ইংরেজি বিভাগের বরখাস্তকৃত প্রভাষক মো. মাহবুবুর রউফের দাখিলকৃত ১৪ মার্চ ২০১৯ ইং তারিখের আপীল আবেদন নিষ্পত্তিকল্পে আপীল শুনানি অনুষ্ঠানে তার বক্তব্য, দাখিলকৃত কাগজপত্র এবং অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিনের বক্তব্য, দাখিলকৃত কাগজপত্র, কলেজ পরিদর্শন শাখার সংশ্লিষ্ট নথি, বিধি বিধান পর্যালোচনায় দেখা যায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত বেসরকারি কলেজ শিক্ষকদের চাকুরী শর্তাবলী রেগুলেশন (সংশোধিত) ২০১৫ এর ধারা ১৬ (ক) অনুযায়ী মাহবুবুর রউফের বিরুদ্ধে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন না করে এবং একই রেগুলেশনের ধারা ১৮ (গ) অনুযায়ী বিশ^বিদ্যালয়ের অনুমতি গ্রহণ ব্যতিরেকে তাকে চাকুরী হতে বরখাস্ত করা হয়েছে যা বিধি সম্মত নয়।  ফলে মাহবুবুর রউফ কর্তৃক দাখিলকৃত আপীল আবেদনের মেরিট থাকায় তা মঞ্জুর করা হল। আদেশের অনুলিপি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষে প্রেরণ করা হয়।

এর প্রতিক্রিয়ায় প্রভাষক মো. মাহবুবুর রউফ বলেন, ‘কলেজের অধ্যক্ষ (চুক্তি ভিত্তিক) মো. গিয়াস উদ্দিন একজন দুর্নীতিবাজ ও বিতর্কিত অধ্যক্ষ। এই বছর কলেজে জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ভুয়া ও সাজানো কর্মসূচী পালন করে নতুন বিতর্কের জন্ম দেন। এছাড়া অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন গ্র্যাচুয়িটির নামে কলেজ ফান্ড থেকে মোটা অংকের টাকা আত্মসাতের অপচেষ্টা করেন এবং অনার্স শিক্ষকদের শতভাগ বেতন ভাতা না দিয়ে তাদেরকে বঞ্চিত করে নিজের আখের গুছান। এইসবের বিরুদ্ধে কথা বলায় তিনি আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘রিজিকের মালিক আল্লাহ। আল্লাহ তায়ালার অশেষ কৃপায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ থেকে আমি আমার আপীলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের চিঠি পেয়েছি। এ রায় পেয়ে আমি সন্তুষ্ট। আমি খুবই শীঘ্রই আমার চাকুরীতে যোগদানের প্রস্তুতি নিচ্ছি। আশা করছি, মইন উদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজের পরিচালনা পর্ষদ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের আদেশকে সম্মান দেখিয়ে আমাকে আমার চাকুরীর বকেয়া বেতন ভাতাসহ স্বপদে পুনর্বহাল করতে সহযোগিতা করবেন। আমি সকলের দোয়া প্রার্থী।’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত