শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

১৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৩:২৪

সুপার কাপের ফাইনালে মুখোমুখি লিভারপুল-চেলসি

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করে আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে এখন লিভারপুল। বুধবার (১৪ আগস্ট) রাতে দ্য রেড শিবিরের সামনে ফের শিরোপা জয়ের সুযোগ। উয়েফা সুপার কাপের ট্রফি রূপালি হাতছানি দিয়ে যাচ্ছে তাদের। ইস্তাম্বুলের ভোডাফোন পার্কের লড়াইয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ীদের প্রতিপক্ষ আজ উয়েফা ইউরোপা লিগ চ্যাম্পিয়ন চেলসি।

ইংলিশ লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কাছে ৪-০ গোলে হেরে মানসিক ভাবে কিছুটা হলেও পিছিয়ে আছে দ্য ব্লুজ শিবির। আর অন্যদিকে, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে ৪-১ গোলে নরউইচ সিটিকে উড়িয়ে দিয়ে তার প্রমাণও দিয়েছে কোচ জুর্গেন ক্লপের দল।

ফুটবল ময়দানে শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে অ্যানফিল্ড শিবিরই হট ফেভারিট। তবে কোচ ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল জয়ের কোনো বিকল্প ভাবছে না। নতুন ফুটবল গুরুকে জয়ের সঙ্গে ট্রফি উপহার দিতে চায় তার স্টামফোর্ড ব্রিজের শিষ্যরা।

তুরস্ক থেকে লিভারপুল-চেলসির তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ টিভির পর্দায় সরাসরি উপভোগ করা যাবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টা থেকে।

শিরোপা জিতলে এটি হবে লিভারপুলের পঞ্চম সুপার কাপ। আর চেলসি এর আগে ইউরোপিয়ান শিরোপা জিতেছিল দুইবার, কিন্তু একবারও সুপার কাপ জেতা হয়নি তাদের। সবশেষ কোনো ইংলিশ দলের সুপার কাপ জয়ের রেকর্ডটা বেশ পুরনো। ২০০৫ সালে লিভারপুলই শেষবার ইংলিশ দল হিসেবে জিতেছিল সুপার কাপের শিরোপা।

স্প্যানিশ লিগের আধিপত্যও ভাঙছে এবার এই টুর্নামেন্টে। সেটা অবশ্য আগেই নিশ্চিত হওয়া ছিল ইংল্যান্ডের চারদল দুই টুর্নামেন্টের ফাইনালে ওঠার পর। গত ৫ বারের তিনবার এই টুর্নামেন্ট জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ, একবার করে বার্সেলোনা ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

লিভারপুল ও চেলসি ইউরোপে একে অপরের মুখোমুখি হচ্ছে এগারো বারের মতো। আগের দশবারের মধ্যে পাঁচবারই হয়েছে ড্র। তিনবার জিতেছে চেলসি, আর দুইবার লিভারপুল।

উয়েফা সুপার কাপের ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছেন ফ্রান্সের স্টেফানি ফ্রাপার্ত। ইউরোপের সর্বোচ্চ ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা (উয়েফা) আয়োজিত ছেলেদের কোনো বড় প্রতিযোগিতায় এবারই প্রথম একজন নারী রেফারি ম্যাচ পরিচালনা করছেন। ম্যাচে লাইন্সম্যান হিসেবেও থাকছেন দুজন নারী। তারা হলেন- ফ্রাপার্তের স্বদেশী ম্যানুয়েলা নিকোলোসি ও আয়ারল্যান্ডের মিশেল ও’নিল।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত