রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:২০

‘এই হার কষ্টের, তবে লজ্জার নয়’

চট্টগ্রাম টেস্টের পঞ্চম দিনের শেষ বিকেলে মাত্র এক ঘণ্টা ২০ মিনিট খেলার সুযোগ করে দিল বৃষ্টি। ১৮.৩ ওভার হাতে, আর উইকেট আছে চারটি।এতটুকু সময় টিকে থাকতে পারল না সাকিব আল হাসানের দল। পারল না লজ্জার হাত থেকে দলকে বাঁচাতে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ২২৪ রানের ঐতিহাসিক জয় তুলে নিয়েছে আফগানরা। টেস্ট ক্রিকেটের নবীন দলটির কাছে এমন পরাজয় স্বাভাবিকভাবে বেশ লজ্জার। কিন্তু বাংলাদেশ অধিনায়ক সেটা মানতে নারাজ।

এই পরাজয়কে কষ্টকর মানলেও কোনোভাবেই লজ্জার বলতে রাজি নন সাকিব। ম্যাচ শেষে সংবাদ সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘এই পরাজয় একটুও লজ্জাজনক বলে আমার মনে হয়নি। এটা কষ্টদায়ক অবশ্যই, তবে লজ্জাজনক নয়।’

দিন শেষে এমন হারকে কীভাবে দেখছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক, ‘এভাবে হারাটা খুব একটা সুখকর নয়। খুবই খারাপ, হতাশাজনক। যত কিছু আছে নেতিবাচক কথা সবই বলে দিতে পারেন। আর আফগানিস্তান নিয়ে আমি বলব, আমরা কখনো ওদের চাপেই ফেলতে পারিনি। স্বাভাবিকভাবে ওরা লেটার মার্কই পাবে এই টেস্টে।’

বাংলাদেশ অধিনায়ক আরো বলেন, ‘আমাদের বুঝতে হবে, কে কোন ফরম্যাটের জন্য ভালো অপশন হবে। আর সেটাতেই লেগে থাকতে হবে। খুব বেশি বাছাই করার আমাদের জায়গা নেই। কারণ আপনি আমাদের প্রিমিয়ার লিগ যদি দেখেন, একটি সেটআপে হয় যেখানে মাত্র কয়েকটি ম্যাচ হয়, ১০-১১টি ম্যাচ হয়। এগুলো দেখেই আমাদের খেলোয়াড় বাছাই করতে হয়। একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হয় যেটি বিপিএল, সেখান থেকে আমাদের খেলোয়াড় বাছাই করতে হয়। একটি হয় আমাদের এনসিএল। এই তিন ফরম্যাট থেকে আমাদের তিন ধরনের খেলোয়াড় বাছাই করতে হয়। তাই খুব বেশি অপশন আছে বলে আমার মনে হয় না।’

তাই এখনই পরিকল্পনা হাতে নিতে হবে বলে মনে করেন সাকিব, ‘আমার কাছে মনে হচ্ছে সামগ্রিকভাবে একটি বড় পরিকল্পনা নিয়ে এগোতে হবে। তা না হলে হয়তো এমন ফলাফল মাঝেমধ্যেই চলে আসবে। হয়তো এখন একটু বেশি হচ্ছে যেটি আমাদের বিশ্বকাপ থেকে শুরু হয়েছে। এরপর শ্রীলঙ্কা এবং আফগানিস্তানের সঙ্গেও। তাড়াতাড়ি আমরা যদি ঘুরে দাঁড়াতে না পারি তাহলে আমাদের জন্য ভালো কিছু চিন্তা করাও কষ্টকর হবে। কারণ আপনি যখন একটি বাজে সময়ের মধ্য দিয়ে যান তখন যেটি হয় যে ভালো কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া খুব কঠিন হয়ে যায়। ভালো জিনিস আসলে যে কোনটি সেটি বুঝতে অনেক কষ্ট হয়। এই কারণে আমাদের তাড়াতাড়ি কয়েকটি ম্যাচ জেতা খুব জরুরি যেন আমরা ভালো সিদ্ধান্তগুলো নিতে পারি।’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত