শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

০৫ নভেম্বর, ২০১৯ ১৯:৫০

দুর্বল ‘মহা’, শঙ্কা কমেছে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ নিয়ে

রাজকোটে সাইক্লোনের কবলে পড়তে যাচ্ছিল বাংলাদেশ দল। তবে আরব সাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় 'মাহা' অনেকটা দুর্বল হয়ে গুজরাটের আশপাশের এলাকা থেকে সরে গেছে। আগের রাতে রাজকোটে এসেও মেলেনি ঘূর্ণিঝড়ের কোনো আভাস। মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) সকাল থেকেই রাজকোটে কড়া রোদ।

দেশটির অন্যান্য এলাকায় শীতের আগমনী সুর বাজলেও এখানে এখনো গরমটা চড়া। সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হিমাংশু শাহ জানালেন, আবহাওয়ায় নেই কোনো অস্বাভাবিক ব্যাপার। হালনাগাদ প্রতিবেদন বলছে, ম্যাচ পণ্ড হওয়ার শঙ্কা খুবই কম।

আগামী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির ভেন্যু সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের মাঠ। এখান থেকে আরব সাগরের দূরত্ব ১৯০ কিলোমিটার। প্রায়ই তাই সাইক্লোনের কবলে পড়তে হয় গুজরাটের এই অঞ্চলকে।

বাংলাদেশ-ভারতের খেলার আগের দিন তেমনই একটি ঘূর্ণিঝড়ের আভাস আছে এই অঞ্চলে। তা হলে ভারী বৃষ্টি ভাসিয়ে নিতে পারে খেলা। কিন্তু এদিন দুপুরে হিমাংশু আবহাওয়া প্রতিবেদন নিয়ে শোনালেন আশাবাদ, ‘আবহাওয়ার নতুন রিপোর্ট বলছে, এটা (ঘূর্ণিঝড়) দুর্বল হয়ে সরে গেছে। আমরা খুবই আশাবাদী। এমনও যদি হয় যে ম্যাচের সকালে বৃষ্টি হচ্ছে, তাতেও চিন্তার কারণ নেই। কারণ আমাদের এখানকার সুযোগ সুবিধা আধুনিক।’

সুযোগ সুবিধা সত্যিই বেশ আধুনিক। রাজকোটের এই ভেন্যুতে রয়েছে অত্যাধুনিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা। হিমাংশুই জানালেন যে ২০১৩ সালে একবার এখানে বিকাল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ঝুম বৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু সব পানি সরিয়ে ঠিকই সন্ধ্যায় শুরু করা গিয়েছিল খেলা।

গেল রবিবার দিল্লিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। রাজকোটে দ্বিতীয় ম্যাচে জিতলেই সিরিজ জিতবে তারা। সিরিজ হারের শঙ্কায় থাকা স্বাগতিক ভারতের জন্য এই ম্যাচ তা-ই বাঁচা মরার লড়াই।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত