শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

০৭ নভেম্বর, ২০১৯ ০৯:৩৫

কস্তার গোলে শেষ ষোলোয় জুভেন্টাস

ছবি: টুইটার

লোকোমোতিভ মস্কোর বিপক্ষে পয়েন্ট হারানোর শঙ্কায় থাকা জুভেন্টাসকে উদ্ধার করলে ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার দগলাস কস্তা। তার অসাধারণ এক গোলে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের এনে দিলেন নাটকীয় জয়।

প্রতিপক্ষের মাঠে বুধবার রাতে ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে জুভেন্টাস। প্রথম দেখায় নিজেদের মাঠে দলটিকে একই ব্যবধানে হারিয়েছিল মাওরিসিও সাররির দল।

এই জয়ে চার ম্যাচে ১০ পয়েন্ট পাওয়া জুভেন্টাসের শেষ ষোলোর টিকেট নিশ্চিত হয়ে গেছে।

প্রতিপক্ষের গোলরক্ষকের ভুলে ম্যাচ শুরু হতেই এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। তৃতীয় মিনিটে রোনালদোর নেওয়া ফ্রি কিকে কোনোরকম বিপদের হুমকি ছিল না। কিন্তু সামনে ড্রপ খাওয়া বল ধরতে গিয়ে তালগোল পাকান গিলেরমো। বল গোললাইন প্রায় পেরিয়েই গিয়েছিল, শেষ মুহূর্তে গিয়ে টোকা দেন অ্যারন র্যামজি।

দ্বাদশ মিনিটে আলেকসেই মিরানচুকের হেড পোস্টে বাধা পাওয়ার পর ফিরতি বল ঠেকানোর সুযোগ ছিল জুভেন্টাস ডিফেন্ডারদের সামনে। কিন্তু কি ভেবে জায়গায় দাঁড়িয়ে ছিলেন তারা! আলগা বল পেয়ে অনায়াসে ঠিকানা খুঁজে নেন রুশ মিডফিল্ডার মিরানচুক।

২১তম মিনিটে মুহূর্তের ব্যবধানে দলকে এগিয়ে নেওয়ার দারুণ দুটি সুযোগ পেয়েছিলেন মিরানচুক। প্রথমবার ছোট ডি-বক্সের বাইরে ফাঁকায় বল পেয়ে শট নিতে ব্যর্থ হন তিনি। পরেরবার তার হেড অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৩৩তম মিনিটে সামি খেদিরার ডি-বক্সে বাড়ানো থ্রু বলে গনসালো হিগুয়াইনের জোরালো ভলি দারুণ নৈপুণ্যে রুখে দেন গিলেরমো।

দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে রোনালদোর ফ্রি কিক ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক। পাঁচ মিনিট পর পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের আরেকটি জোরালো শট রুখে দেন গিলেরমো। ৭৮তম মিনিটে উল্টো গোল খেতে বসেছিল তারা। জোয়াও মারিওর শট গোললাইন থেকে ফেরান লিওনার্দো বোনুচ্চি।

৮১তম মিনিটে রোনালদোকে বসিয়ে পাওলো দিবালাকে নামান কোচ। প্রথম লেগে পিছিয়ে পড়া দলকে দুই মিনিটে দুই গোল করে জয় এনে দিয়েছিলেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। এবার আর তেমন কিছু করতে পারেননি তিনি। পার্থক্য গড়ে দেন আরেক বদলি খেলোয়াড় কস্তা।

যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে বাঁ দিক থেকে পায়ে একাধিক খেলোয়ড়কে ফাঁকি দিয়ে হিগুয়াইনকে বল বাড়িয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন কস্তা। এরপর ফিরতি বল ধরে জোরালো শটে জয় নিশ্চিত করেন ব্রাজিলের এই উইঙ্গার।

চার ম্যাচে তিন জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে জুভেন্টাস। লোকোমোতিভ মস্কোর পয়েন্ট ৩।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত