মঙ্গলবার, , ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

এস আলম সুমন, কুলাউড়া

১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫৬

কুলাউড়ার সাবেক সাংসদ শাহীন বিকল্পধারায়, কী করবেন অনুসারীরা?

মৌলভীবাজার-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও ঠিকানা গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এম শাহীন বিএনপির দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে যোগ দিলেন ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বিকল্পধারায়।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) বেলা ৩টার দিকে সাবেক রাষ্ট্রপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন বিকল্পধারার রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের কার্যকরী সভার মাধ্যমে তিনি যোগদান করেছেন।

এদিকে তার অনুসারী বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা এখন কী করবেন সে বিষয়টি এখন 'টক অব দ্যা টাউন'।

এরই মধ্যে শুরু হয়েছে গুঞ্জন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী হয়ে মৌলভীবাজার-২ আসনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সম্ভাবনা রয়েছে তার।

এদিকে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে তিনি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার খবরে তার অনুসারী বিএনপি নেতাকর্মী ও স্থানীয়দের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। নেতাকর্মীদের অনেকেই এ ব্যাপারে সরাসরি মুখ খুলতে নারাজ হলেও তাদের মধ্যে একটা চাপা ক্ষোভ ও প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন নেতাকর্মী জানান, তিনি যদি আগের মতই স্বতন্ত্র প্রার্থী হতেন তাহলে হয়তো তাকে সমর্থন দিতে পারতাম। কিন্তু তিনি মহাজোটের প্রার্থী হলে তার পক্ষে কাজ করা দলীয় আদর্শের সাথে সাংঘর্ষিক।

বুধবার (১৪ নভেম্বর) কুলাউড়াস্থ উনার নিজ বাসভবন প্রাঙ্গণে তার অনুসারী বিএনপির একাংশের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করেন।

এ সময় এম এম শাহীন বলেন, বিএনপি আমার সাথে আলাপ না করে আওয়ামী রাজনীতির জড়িত ড. কামালের নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্টের এক ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেয়ার চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, চলতি বছরের মে মাসে দলীয় হাইকমান্ড থেকে নিজ নির্বাচনী এলাকায় কাজ করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়। অথচ আমাকে ও আমার নেতাকর্মীদের সাথে কোন কথা না বলেই ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে ওই নেতাকে (সুলতান মনসুর) প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়ার চিন্তা করছে। বিষয়টি আমি জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব সদুত্তর দেননি। উনি জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগান দিয়ে, মুজিব কোট পরে শহীদ জিয়ার ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন সেটা মেনে নেয়া যায় না।

বিএনপির একাংশের সাধারণ সম্পাদক রেদওয়ান খান বলেন, আমাদের সাথে উনার যে মতবিনিময় হয়েছে সেখানে আমরা তাকে দলীয় মনোনয়ন কেনার জন্য বলেছি। উনি দলবদল করেছেন, সেটা উনার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। আমরা কুলাউড়া বিএনপির নেতাকর্মীর এই নির্বাচনে বর্তমানে ঐক্যফ্রন্ট থেকে যে ধানের শীষ নিয়ে আসবেন তার পক্ষে কাজ করে যাবো।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০০১ সালে চারদলীয় জোটের মনোনয়ন বঞ্চিত এবং এক এগারোর সময় সংস্কারপন্থীর অভিযোগে ২০০৮ সালে মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেন এম এম শাহীন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত