COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

56

Confirmed Cases,
Bangladesh

06

Deaths in
Bangladesh

25

Total
Recovered

966,702

Worldwide
Cases

49,290

Deaths
Worldwide

203,535

Total
Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

বিনোদন রিপোর্ট

১৩ ফেব্রুয়ারি , ২০২০ ০০:৪২

আজ সিলেট আসছে ‘ইম্ফাল টকিজ’

বাংলাদেশে গাইতে আসছে ভারতের মণিপুরের ব্যান্ড ‘ইম্ফাল টকিজ’। ‘ইম্ফাল টকিজ বাংলাদেশ ট্যুর ২০২০’ শীর্ষক এই সফরে সিলেট, বিশগাঁও ও ভানুগাছে মোট ৩টি আয়োজনে বাংলাদেশের মণিপুরি শ্রোতাদের জন্য গাইবে তারা। আজ  সন্ধ্যা ৬ টায় নগরীর লামাবাজার মণিপুরি মন্ডপে সফরের প্রথম শো অনুষ্ঠিত হবে।

১৪ ফেব্রুয়ারি হবিগঞ্জ, চুনারুঘাট উপজেলায় অবস্থিত বিশগাঁও আবাদগাঁও মন্ডপে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় শো। সফরের সর্বশেষ শোতে ইম্ফাল টকিজ গাইবে ১৫ ফেব্রুয়ারি, কমলগঞ্জের তেতইগাঁও, আদমপুর বাজারে অবস্থিত মণিপুরি কালচারাল কমপ্লেক্সে হলে। ঘরোয়া ও বৈঠকি ঢংয়ে আয়োজিত গানের এই আসরগুলি শেষে উপস্থিত দর্শকশ্রোতাদের সাথে চলবে সরাসরি আড্ডা ও আলাপচারিতা। শো তিনটি আয়োজন করবে যথাক্রমে লামাবাজার নাহারোল লুপ, বিশগাঁও মণিপুরি ক্লাব ও ভানুগাছ নাহারোল অপূনবা লুপ। তাদের সর্বশেষ প্রকাশিত অ্যালবাম ‘ইমাগী ওয়ারী’-এর প্রচারণামূলক এই সফরে আসছেন ব্যান্ডটির ৫ সদস্য।

 ইম্ফাল টকিজের প্রতিষ্ঠাতা ও গায়ক আখু চিঙাংবাম গত বছর আসাম, বাংলাদেশ ও ত্রিপুরার মণিপুরি অধ্যুষিত কিছু অঞ্চল ভ্রমণ করেন। সেই ভ্রমণে তিনি আসাম, ত্রিপুরা ও বাংলাদেশে বসবাসরত মণিপুরি কবি-সাহিত্যিক ও নানান শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে আলাপ করেন এবং তাদের অভিবাসনের ইতিহাস, সাহিত্য, জীবন-সংগ্রাম ও ডায়াস্পোরিক অভিজ্ঞতার কথা শোনেন। ইন্ডিয়া ফাউন্ডেশন ফর দ্যা আর্টস (আইএফএ)-এর সহযোগিতায় প্রকাশিত তাদের সর্বশেষ অ্যালবাম ‘ইমাগী ওয়ারী' অ্যালবামের গানগুলিতে এসেছে তাদের সেই গল্প ও অভিজ্ঞতার কথা। শোতে আগত দর্শকরা ব্যান্ড সদস্যদের সাক্ষর সম্বলিত ‘ইমাগী ওয়ারী’ অ্যালবামের সিডি সংগ্রহ করতে পারবেন ভেন্যুস্থল থেকে।

২০০৮ সালে যাত্রা শুরু করা ‘ইম্ফাল টকিজ’ মূলত ফোক-রক ধারার গান করে থাকে। ভারতের মণিপুর ও উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোতে চলমান জাতিগত সহিংসতা, বর্ণবিদ্বেষ ইত্যাদি নিয়ে প্রতিবাদী গান গাওয়ার জন্য তারা সুপরিচিত। ভারতের রোলিং স্টোন ম্যাগাজিন তাদেরকে ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোর ‘স্বর' হিসেবে অভিহিত করেছিল। পাশ্চাত্যের ফোক, রক ও ব্লুজ ধারার সাথে মণিপুরি লোকসংগীতের বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র (যেমন- পেনা, লাংদে, তৌদ্রি ইত্যাদি) ও মণিপুরি লোকসাহিত্যের অনুষঙ্গের (যেমন ফুঙ্গাওয়ারী, লোকছড়া, নাউশুম ইশৈ ইত্যাদি) মিশেল ঘটিয়ে শিকড়ঘেঁষা মৌলিক গান সৃষ্টি করার জন্য ইম্ফাল টকিজ ইতিমধ্যেই তাদের নিজস্ব এক শ্রোতাগোষ্ঠী সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত