সিলেটটুডে ডেস্ক

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০২:৩১

চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে আইপিএল শুরু চেন্নাই কিংসের

গত আসরের ফাইনাল হারের প্রতিশোধ নিয়েই যেন এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) শুরু করলো চেন্নাই সুপার কিংস। গত আসরে যাদের কাছে হারাতে হয়েছিল শিরোপা, সেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে আইপিএল মিশন শুরু করলো মহেন্দ্র সিং ধোনির দল।   

এবারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে আবুদাবিতে মুখোমুখি হয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও চেন্নাই সুপার কিংস। রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে মুম্বাইকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে চেন্নাই।

টস হেরে আগে ব্যাটিং করতে নামা মুম্বাইয়ের কয়েকজন ব্যাটসম্যান ভালো শুরু করেও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। ৯ উইকেটে ১৬২ রান তোলে আইপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

জবাবে শুরুটা ভালো না হলেও দলকে দিক হারাতে দেননি ফাফ ডু প্লেসি ও ম্যাচ সেরা আম্বতি রাইডু। এরপর শেষের দিকে স্যাম কারেনের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জয়ের খুব কাছে পৌঁছে যায় যায় চেন্নাই। বাকি কাজটুকু সেরেছেন তিন নম্বরে নেমে অপরাজিত থাকা ডু প্লেসি।

জয়ের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে দলীয় ৬ রানেই দুই ওপেনার শেন ওয়াটসন ও মুরালি বিজয়কে হারায় চেন্নাই। শুরুটা এলোমেলো হলেও দলকে তা বুঝতে দেননি ডু প্লেসি ও রাইডু। এই দুই ব্যাটসম্যান ১১৫ রানের জুটি গড়েন। ম্যাচ সেরা আম্বতি ৪৮ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৭১ রান করেন।

এরপর রবীন্দ্র জাদেজা দ্রুত ফিরলে উইকেটে আসেন স্যাম কারেন। ডু প্লেসিকে এক পাশে রেখে তাণ্ডব শুরু করেন ইংলিশ এই ক্রিকেটার। ৬ বলে ১৮ রান করেন তিনি। এরপর ধোনি উইকেটে গেলেও ডু প্লেসি একাই বাকি কাজটুকু সেরে নেন। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান ৪৪ বলে ৬টি চারে ৫৮ রানে অপরাজিত থাকেন। বুমরাহ, বোল্ট, প্যাটিনসনরা একটি করে উইকেট নেন।

এরআগে ব্যাটিং করা মুম্বাইয়ের কোনো ব্যাটসম্যানই হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৪২ রান করেন সৌরভ তিওয়ারি। এ ছাড়া অধিনায়ক রোহিত শর্মা ১২, কুইন্টন ডি কক ৩৩, সুর্য কুমার যাদব ১৭, হার্দিক পাণ্ডিয়া ১৪ ও কাইরন পোলার্ড ১৮ রান করেন। চেন্নাইয়ের লুঙ্গি এনগিডি ৩ এবং দীপক চাহার ও রবীন্দ্র জাদেজা ২টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স: ২০ ওভারে ১৬২/৯ (রোহিত ১২, ডি কক ৩৩, সুর্য কুমার ১৭, সৌরভ তিওয়ারি ৪২, হার্দিক ১৪ ও পোলার্ড ১৮; এনগিডি ৩/৩৮, চাহার ২/৩২, জাদেজা ২/৪২)।

চেন্নাই সুপার কিংস: ১৯.২ ওভারে ১৬৫/৫ (ডু প্লেসি ৫৮*, রাইডু ৭১, কারেন ১৮; বোল্ট ১/২৩, প্যাটিনসন ১/২৭, বুমরাহ ১/৪৩)।

ফল: চেন্নাই ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরা: আম্বতি রাইডু (চেন্নাই)।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত