স্পোর্টস ডেস্ক

০৮ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৫৯

সেমিফাইনালের পথে পিএসজি-চেলসি, হেরেছে বায়ার্ন-পোর্তো

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ

গত মৌসুমে এই বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ফাইনালে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল পিএসজির। ফাইনালে এক গোলে হেরে গিয়েছিল তারা। এর সাত মাস পর ফের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মুখোমুখি হয়ে সেই শোধ নিলো কঠিনভাবে। এবার অবশ্য ফাইনাল নয়, কোয়ার্টার ফাইনালের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে সেমিফাইনালের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেছে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা।

বুধবার রাতে আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-২ গোলে জিতেছে পিএসজি। এমবাপে ও মার্কিনিয়োসের গোলে পিছিয়ে পড়ার পর ঘুরে দাঁড়ায় গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। এরিক-মাক্মিম চুপো মোটিং ব্যবধান কমানোর পর সমতা টানেন টমাস মুলার। পরে এমবাপের দ্বিতীয় গোলে জয় নিয়ে ফেরে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। এই ম্যাচে নিজে কোনো গোল করতে না পারলে জোড়া অ্যাসিস্ট করেছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার।

শেষ ষোলোর প্রথম লেগে বার্সেলোনার মাঠে হ্যাটট্রিক করে পার্থক্য গড়ে দিয়েছিলেন এমবাপে। এবার করলেন জোড়া গোল। দুটি গোলে অবদান রাখলেন নেইমার।

ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে পাল্টা আক্রমণে এগিয়ে যায় পিএসজি। ডি-বক্সের মুখে ডিফেন্ডারদের ঘিরে থাকা অবস্থায় ডান দিকে বল বাড়ান নেইমার। জোরালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন এমবাপে।

ব্যবধান দ্বিগুণ করা গোলেও দারুণ অবদান আছে নেইমারের। ২৮তম মিনিটে তার উঁচু করে বাড়ানো বল বাঁ পায়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে পেনাল্টি স্পটের কাছ থেকে ডান পায়ের শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্কিনিয়োস।

৩৭তম মিনিটে সাবেক দলের জালে বল পাঠান চুপো মোটিং। ফরাসি ডিফেন্ডার পাভার্দের ডান দিক থেকে বাড়ানো ক্রসে লাফিয়ে জোরালো হেডে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ক্যামেরুনের এই ফরোয়ার্ড। গত অক্টোবরে পিএসজি থেকে বায়ার্নে যোগ দেন তিনি।

৬০তম মিনিটে ডান দিক থেকে জশুয়া কিমিচের ফ্রি কিকে চোখের পলকে এগিয়ে গিয়ে লাফিয়ে হেডে স্কোরলাইন ২-২ করেন মুলার।

৬৮তম মিনিটে আবারও দলকে এগিয়ে নেন এমবাপে। আনহেল দি মারিয়ার পাস ডি-বক্সে পেয়ে জায়গা বানিয়ে কাছের পোস্ট দিয়ে বল জালে পাঠান ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী তারকা।

আগামী মঙ্গলবার ফিরতি পর্বে প্রতিপক্ষের মাঠে কমপক্ষে দুই গোলের ব্যবধানে জিততে হবে তাদের। অন্যদিকে, ঘরের মাঠে ড্র করলেই যথেষ্ট হবে পিএসজির। এমনকি হারলেও তিনটি অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা থাকছে তাদের।

পোর্তোকে হারিয়েছে চেলসি
পোর্তোকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে ওঠার পথে এগিয়ে গেছে চেলসি। বুধবার রাতে সেভিয়ায় কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে ২-০ গোলে জিতেছে চেলসি। ম্যাসন মাউন্ট ইংলিশ দলটিকে এগিয়ে নেওয়ার পর ব্যবধান বাড়ান বেন চিলওয়েল।

৩২তম মিনিটে এগিয়ে যায় চেলসি। জর্জিনিয়োর পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে ডান পায়ের শটে দূরের পোস্ট দিয়ে গোলটি করেন মাউন্ট। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ইংলিশ এই মিডফিল্ডারের এটাই প্রথম গোল। প্রতিযোগিতাটির নকআউট পর্বে চেলসির সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা হলেন তিনি (২২ বছর ৮৭ দিন)।

৮৫তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন চিলওয়েল। প্রতিপক্ষের ভুলে বল পেয়ে ডি-বক্সে ঢুকে গোলরক্ষককে কাটিয়ে ফাঁকা জালে পাঠান এই ইংলিশ ডিফেন্ডার।

আগামী মঙ্গলবার হবে ফিরতি লেগ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত