COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

49

Confirmed Cases,
Bangladesh

05

Deaths in
Bangladesh

19

Total
Recovered

771,765

Worldwide
Cases

37,001

Deaths
Worldwide

160,243

Total
Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

স্পোর্টস ডেস্ক

১৯ ফেব্রুয়ারি , ২০২০ ১৭:৩৭

সিলেটেই শেষ মাশরাফি অধ্যায়!

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের তিনটি ম্যাচ হবে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। সূচি অনুযায়ী আগামী ১,৩ ও ৬ মার্চ হবে ওয়ানডে সিরিজটি। এই সিরিজের মাধ্যমেই অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফি বিন মুর্তজার সমাপ্তি দেখেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তবে এজন্যে মাশরাফিকে ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হবে।

বুধবার বিসিবিতে সংবাদ সম্মেলনে এর ইঙ্গিত দিলেন বিসিবি বস পাপন। জানালেন, ফিটনেস প্রমাণ করতে পারলে গত বিশ্বকাপের পর এই সিরিজ দিয়েই আবার জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছেন দেশের সফলতম ওয়ানডে অধিনায়ক ও বোলার।

২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকেই মাঠের বাইরে মাশরাফি মুর্তজা। বিশ্বকাপের পর চোটের কারণে খেলেননি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। দীর্ঘদিন পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে যাচ্ছেন। যা অধিনায়ক হিসেবে তার শেষ সিরিজ।

বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে টেস্ট দলের তিন ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম, মমিনুল হক ও তামিম ইকবালের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন বিসিবি সভাপতি। সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, অধিনায়ক হিসেবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজটিকেই মাশরাফির শেষ সিরিজ হিসেবে দেখছেন।

কেন এটিকে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষ সিরিজ দেখছেন সেই ব্যাখ্যাও তিনি দিয়েছেন, ‘সামনের ওয়ানডে বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে আমাদের দল গোছাতে হবে। একজন অধিনায়কও ঠিক করতে হবে। বিশ্বকাপের আগে অন্তত দুই বছর যেন ওই অধিনায়কের নেতৃত্বে টিমটা খেলতে পারে। সুতরাং খুব দ্রুত আমরা ওয়ানডেতে নতুন অধিনায়কের নাম ঘোষণা করবো। সম্ভবত আগামী ৭-৮ তারিখে বোর্ড সভায় এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হবে।’

অধিনায়কত্ব না থাকলেও বাংলাদেশ দলের দুয়ার যে একেবারেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে মাশরাফির সামনে, সেটি বলতে চান না বিসিবি সভাপতি। জানালেন, ‘অবসর নেওয়ার ব্যাপারটা খেলোয়াড়ের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। সে ভবিষ্যতেও খেলতে পারে। আমরা দলের অধিনায়কত্ব নিয়ে চিন্তিত। যদি অন্য কাউকে অধিনায়ক ঘোষণা করি, তখন একজন খেলোয়াড় হিসেবে সে যদি ঢুকতে পারে ঢুকবে। এটাতে কারও বাধা নেই।’

অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত খেলোয়াড়ের ব্যক্তিগত হলেও পাপন মনে করেন, মাশরাফির সময় এসেছে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবার, ‘অধিনায়ক মাশরাফির বিকল্প নেই। আগে বিপ টেস্ট চালুর ব্যাপার ছিল না। এখন এটা আমরা চালু করেছি। মাশরাফি বিপ টেস্ট পাস নাও করতে পারে। বাংলাদেশ ক্রিকেটের যে বাঁক বদল সেখানে মাশরাফির অবদান অস্বীকার করার উপায় নেই। ওর নেতৃত্ব আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে তার সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেওয়ার যে সে কত দিন খেলবে। অনেক বিষয় জড়িয়ে আছে এখানে।’

পাপনের কথা শেষ পর্যন্ত ঠিক থাকলে এবং জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাশরাফি খেলতে পারলে সিলেটেই শেষ হচ্ছে মাশরাফির বর্ণিল ক্রিকেট অধিনায়কত্বের অধ্যায়!

আপনার মন্তব্য

আলোচিত