COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

330

Confirmed Cases

21

Deaths

33

Recovered

1,593,132

Cases

95,023

Deaths

353,344

Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

আল আজাদ

১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২০ ১৩:৪৬

এই ভাষাসৈনিক সম্মাননায় সিলেটবাসী বুক ফুলিয়ে হাঁটতে পারে

সিলেট সিটি করপোরেশন ও সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকম-এর যৌথ উদ্যোগে ১৬ ফেব্রুয়ারি সিলেটে ৭ ভাষাসৈনিককে সম্মাননা দেওয়া হয়

সিলেট সিটি করপোরেশন আরও একটি মহৎ কাজ করলো ভাষাসৈনিক সম্মাননা প্রবর্তন করে। উদ্যোগটির সাথে যুক্ত হয়েছে একঝাঁক তরুণ পরিচালিত জনপ্রিয় অনলাইন নিউজপোর্টাল সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকম। তাই আশা করতে পারি, উদ্যোগটি দীর্ঘস্থায়ী হবে। প্রবল ইচ্ছে ছিল অনুষ্ঠানে যাওয়ার; কিন্তু শেষপর্যন্ত পেশাগত কাজের ভীষণ চাপে যেতে পারিনি। এজন্যে নিজেরই খারাপ লাগছে।

প্রথমবার সাত ভাষা সৈনিককে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে টানা ১০ বছর অর্থমন্ত্রীর আসনে থেকে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে একটি শক্ত ভিতের উপর দাঁড় করাতে সফল সর্বজন শ্রদ্ধেয় আবুল মাল আব্দুল মুহিতই একমাত্র জীবিত। জাতির অপর ছয় কৃতিসন্তানকে দেওয়া হয়েছে মরণোত্তর সম্মাননা। এই উদ্যোগটির জন্যে কেবল উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান দুটি নয়-পুরো সিলেটবাসীই বুক ফুলিয়ে হাঁটতে পারেন।

সম্মাননাপ্রাপ্ত ভাষা সৈনিকদের মধ্যে কয়েকজন জাতীয় পর্যায়ে আর কয়েকজন স্থানীয় পর্যায়ে আন্দোলন-সংগ্রামে সক্রিয় ছিলেন। এমনকি ঢাকায় ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করার ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তটিই তো দিয়েছিলেন, জাতীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদ। অন্যরাও সামনে ছিলেন।

এটা সর্বজন স্বীকৃত যে, সিলেটে অর্থাৎ স্থানীয় পর্যায়ে মহান ভাষা আন্দোলন গড়ে তোলার ক্ষেত্রে নেতৃত্বে শীর্ষে ছিলেন, জননেতা পীর হবিবুর রহমান। এরপর আসে কমরেড আসাদ্দর আলী ও সাংবাদিক এ এইচ সা'দত খানের নাম। তাই এ তিনটি নামই প্রথম তালিকায় থাকার দরকার ছিল। এছাড়া নেতৃত্বে থাকা জীবিত ভাষাসৈনিকদের মধ্যে অধ্যাপক আব্দুল আজিজ এখন জীবনের শেষপ্রান্তে। এ নামটি যুক্ত থাকলে মনে হয়, আরও ভাল হতো।

অবশ্য বলা হতে পারে, এখানেইতো শেষ নয়। আসলেও তাই। তবে মনে রাখতে হবে, সিলেটে নেতা-কর্মী মিলিয়ে ভাষা সৈনিক অনেক। তাই আগামীতে ক্রমটার দিকে খেয়াল রাখলে ভাল হবে।

উল্লেখ করতে পারি, বছর কয়েক আগে খান মোহাম্মদ বিলাল সিলেটের জেলা প্রশাসক থাকাকালীন আমার প্রস্তাবে জীবিত কয়েকজন ভাষাসৈনিককে সম্মাননা জানানো হয়েছিল; কিন্তু প্রশাসনিক এ উদ্যোগটি অব্যাহত থাকেনি।

সবশেষে একটু গর্ব করেই বলছি, সিসিক ও সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকম সম্মাননাপ্রাপ্ত সাত ভাষা সৈনিকের মাঝে আত্মীয়তার সুবাদে আব্দুস সামাদ আজাদ ও ডা হারিস উদ্দিনের স্নেহধন্য আমি। আমার সাথে সম্পর্ক নানা-নাতির। আরও কয়েকজন আত্মীয়ও মহান ভাষা আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন। তাই এ ধরনের উদ্যোগ আমাকে বেশি নাড়া নেয়।

উদ্যোক্তাদেরকে আবারো ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
          আল আজাদ: জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত