COVID-19
CORONAVIRUS
OUTBREAK

Bangladesh

Worldwide

330

Confirmed Cases

21

Deaths

33

Recovered

1,535,766

Cases

89,873

Deaths

340,058

Recovered

Source : IEDCR

Source : worldometers.info

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৭ জানুয়ারি, ২০২০ ১৬:২৯

সাংসদ জানেন না তিনি মাহফিলের প্রধান অতিথি!

আলোচিত ইসলামী বক্তা মিজানুর রহমান আযহারীর তাফসীরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে এক সাংসদের নাম ব্যবহার করায় তিনি এর প্রতিবাদ করেছেন। সাংসদ জানিয়েছেন তার নাম ব্যবহার করে পোস্টার প্রকাশের বিষয়টি তিনি জানেন না।

নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সাংসদ এইচ এম ইব্রাহীম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভেরিফায়েড আইডিতে এই তথ্য জানান।

সাংসদ ইব্রাহীম বলেন, ওয়াজ-মাহফিল যেহেতু একটি দ্বীনি বিষয়, তাই দ্বীনের অন্যান্য বিষয়ের মতো এক্ষেত্রেও রাসূল (সা.)-কে অনুকরণ করা জরুরি। মানুষের ব্যক্তি জীবনের পরিশুদ্ধি ও বিশ্বাসের সংশোধনের ক্ষেত্রে ওয়াজ মাহফিলের গুরুত্ব অপরিসীম। ওয়াজ-মাহফিল নিয়ে আমার/আমাদের কোন আপত্তি নেই। ওয়াজ-মাহফিল নতুন কোন বিষয় নয়। যুগ যুগ ধরে তা নিজস্ব গতি ও নিয়মে চলে আসছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে ইদানীং নিয়ম-নীতিতে কিছুটা পরিবর্তন পরিলক্ষিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, সম্প্রতি আমার নজরে এসেছে যে, রঘুনাথপুরের একটি ওয়াজ-মাহফিলে আমাকে এবং উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জনাব জাহাঙ্গীর কবির সাহেবকে না জানিয়ে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি করে পোস্টার ছাপানো হয়েছে।
সাংসদ ইব্রাহীম বলেন, ওয়াজ-মাহফিল হবে এটা আমি জানি কিন্তু বিষয়বস্তু পরিষ্কারভাবে না জানিয়ে এভাবে পোস্টারে কারো নাম ছাপানো সমীচীন বলে আমি মনে করি না। পোস্টার সম্পর্কে আমি অবগত নই।

নোয়াখালীর চাটখিলের রঘুনাথপুর বায়তুন নুর জামে মসজিদ ও যুব সমাজের উদ্যোগে আগামী ২৬ জানুয়ারি এই তাফসীরুল কোরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এই মাহফিলে স্থানীয় সাংসদ এম এম ইব্রাহীমকে প্রধান অতিথি ও চাটখিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ জাহাঙ্গীর কবিরকে বিশেষ অতিথি দাবি করে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। তাফসীরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেওয়ার কথা মিজানুর রহমান আযহারীর।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে ইসলামী বক্তাদের মধ্যে মিজানুর রহমান আযহারী ব্যাপক আলোচিত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সকল জায়গায় তার পক্ষে-বিপক্ষে আলোচনা চলছে। অনেক ইসলামী বক্তা আযহারীর বিরুদ্ধে নবী মুহাম্মদ (সা.), বিবি খাদিজা, হযরত আলীসহ অনেক নবী-রাসূল-সাহাবীদের বিরুদ্ধে কটূক্তির অভিযোগ তুলেছেন। এমন অবস্থায় সম্প্রতি সিলেটে আযহারীর সকলধরনের মাহফিলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।