রবিবার, , ১৮ নভেম্বর ২০১৮ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৫ মে, ২০১৮ ০১:০০

বাঁচানো গেলো না পা হারানো নিলয়কেও

নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় ডান পা হারানো কিশোর নিলয় (১৫) মারা গেছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে শহরের ফতেপুর এলাকায় বাইপাস সড়কে ভটভটির সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে পা হারায় নিলয়। এ সময় আহত হয় আরও দুই কিশোর।

নিহত নিলয় নওগাঁ শহরের মাস্টারপাড়ার আফতাব মোল্লার ছেলে।

আহতরা হলো- মাস্টারপাড়ার রানা হোসেনের ছেলে রাকিব হোসেন (১৬) ও সদরের বরেন্দ্র অফিস এলাকার জেমসের ছেলে সাদমান (১৬)। এরা সবাই নওগাঁ কেডি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে নিলয়সহ তিন বন্ধু মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে বের হয়। নিলয় মোটরসাইকেলটি চালাচ্ছিল এবং অপর দুই বন্ধু রাকিব হোসেন ও সাদমান পেছনে বসা ছিল। শহরের বাইপাস ব্রিজ এলাকা থেকে শান্তাহারের দিকে যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ভটভটি মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেল নিয়ে তারা রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে। ফলে নিলয়ের ডান পা হাঁটু থেকে আলাদা হয়ে যায়। এ সময় নিলয়ের সাথে থাকা রাকিব হোসেন ও সাদমান গুরুতর আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। তবে নিলয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তবে রাকিব হোসেন ও সাদমান নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সমিত কুমার কুন্ডু নিলয়ের নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সম্প্রতি রাজধানী ঢাকায় সড়কে বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর শিকার হয়ে হাত হারানোর কয়েক দিন পর মারা যান কলেজছাত্র রাজীব। এরপর বাসচাপায় পা হারিয়ে চিরবিদায় নেন রোজিনা।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত