রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

‘অনুপ্রাণন’-এর ‘বিশেষ অণুগল্প সংখ্যা’ প্রকাশিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৬ ২০:১২:৫৪

নিজস্ব প্রতিবেদক:

শিল্প-সাহিত্যের নিয়মিত ত্রৈমাসিক ‘অনুপ্রাণন’ প্রকাশিত হয়েছে। এটা সাহিত্য পত্রিকাটির ৮ম বর্ষ ৩য় সংখ্যা; বিশেষ অণুগল্প সংখ্যা।

ঢাকা থেকে প্রকাশিত এ সংখ্যায় নিয়মিত অন্যান্য বিভাগের পাশাপাশি সাম্প্রতিক সময়ে লোকান্তরিত হয়ে যাওয়া দেশি-বিদেশি বেশ কয়েকজন সাহিত্যিক, বরেণ্যজনকে।

শ্রদ্ধা স্মরণ বিভাগে আবু এম ইউসুফ লিখেছেন মমতাজউদদীন আহমদ: একজন সম্পূর্ণ মানুষ। এছাড়াও এ বিভাগে মিরন মহিউদ্দীন-এর লেখার শিরোনাম শতবর্ষে হেমন্ত মুখোপাধ্যায়: মনের জানালা ধরে। বঙ্গবন্ধুর কলকাতা স্মৃতি শিরোনামে লিখেছেন ড. শিল্পী ভদ্র।

প্রবন্ধ বিভাগে স্থান পেয়েছে আশরাফ উদ্দীন আহমদের ‘আগুনপাখি’ বিষয়ের গভীরে হাসান; চন্দনকৃষ্ণ পালের ছড়াকার আবু জাফর সাবু: আলোর ঝলক পাতায় পাতায়; কবির মুকুল প্রদীপের উত্তর-আধুনিক সাহিত্যের বৈশিষ্ট্য শনাক্তকরণ; মোহাম্মদ জসিম উদ্দিনের স্ববিরোধী স্বজাতিকেন্দ্রিকতা ও বাংলা নববর্ষ উদযাপন; অণুগল্প নিয়ে রহিমা আক্তার মৌ'র প্রবন্ধ অণুগল্প- ছোট জানালা বিশাল আকাশ।

সাক্ষাৎকার বিভাগে প্রকাশিত লেখা হচ্ছে মামুন মুস্তাফার সাহিত্যে বড় কিছু অর্জনের ক্ষেত্রে আত্মসমালোচনা জরুরি।

এ সংখ্যায় গুচ্ছকবিতা বিভাগে স্থান পেয়েছে কবি আল মামুন, মারুফ আহমেদ নয়ন, শম্পা মনিমা এবং নীলাদ্রি দেবের কবিতা। এছাড়া যুগল কবিতায় প্রকাশিত কবিরা হচ্ছেন ফকির ইলিয়াস, মেহেদি হাসান, মোহাম্মদ হোসাইন, নিঃশব্দ আহামদ, ও শুভজিৎ বোস।

একক কবিতা লিখেছেন ফখরুল আলম, জোবায়ের মিলন, মোজাম্মেল হক নিয়োগী, মোস্তফা মঈন, ফারহানা আকতার ও মোস্তফা তারিকুল আহসান। দীর্ঘ কবিতাও আছেন অনুপ্রাণনের এই সংখ্যায়; লিখেছেন সৌবর্ণ বাঁধন। ছড়া কবিতা
লিখেছেন ইন্দিরা দাশ ও সাফাত বিন ছানাউল্লাহ।

ছোট গল্প লিখেছেন দেবদ্যুতি রায়, মোখলেস মুকুল, মনোজিৎকুমার দাস, নাফিস অলি, রিপন চন্দ্র মল্লিক, রীতা রায়, সবুজ ওয়াহিদ, সানাউল্লাহ সাগর, ও শামীম আহমেদ।

গুচ্ছ অণুগল্প লিখেছেন চন্দন আনোয়ার, ফরিদুর রহমান, শামীম আহমেদ, সানোয়ার রাসেল, কৃষক মাহমুদ, মাসুম মাহমুদ, ও মাহফুজ রিপন। এছাড়াও অণুগল্প লিখেছেন এ কে এম আব্দুল্লাহ, চূড়ান্ত সাহা, এলিজা খাতুন, হাফিজ উদ্দীন আহমদ, মিরন মহিউদ্দীন, নাফিস সাদিক, রেজওয়ানা ফাতেমা স্বপ্না, রাশিকুর রহমান রিফাত, সাদরিল শাহজাহান, শংকর ব্রহ্ম, শারমিন সুলতানা রীনা, সুমী সিকানদার, ও কানিজ ফাতেমা নওমি। .
ইশ যদি ১২২

মাইক্রোফিকশন লিখেছেন আরজু নাসরিন, রফিকুজ্জামান রণি, ও হাসিনুল ইসলাম। মুক্ত গদ্য বিভাগে স্থান পেয়েছে অঙ্গিরা দত্ত দণ্ডপাট, ফারজানা ভূঁইয়া, ও শাশ্বত স্বপনের লেখা। ভ্রমণ কাহিনীতে আছে শঙ্করি দাসের 'দেখা হলো বেঙ্গালুরু হেলথ সিটি' শিরোনামের লেখা।

অনুবাদ ও পাঠ প্রতিক্রিয়া বিভাগে স্থান পেয়েছেন মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, মাসুদ পারভেজ, সুলতানা শাহরিয়া পিউ ও উদয় শংকর দুর্জয়ের লেখাগুলো। বই আলোচনা করছেন আহসান হাবিব, দেবব্রত দাস, মাহমুদ নোমান, মাইনউদ্দিন মাইন, পি ডি বিজয়। চলচ্চিত্র নিয়ে লিখেছেন সান্তা রিকি।

অনুপ্রাণনের এ সংখ্যাটি পাওয়া যাচ্ছে কাঁটাবন, ঢাকাস্থ অনুপ্রাণন'র প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্রে। ঢাকার বাইরের পাঠকেরা পত্রিকাটি সংগ্রহ করতে ফোনে (০১৭৬৬৬৮৪৪৩৬), ইমেইলে, ফেসবুকে, অথবা পত্রিকাটির নিজস্ব ওওয়েবসাইটে www.anupranon.com এ গিয়ে অনলাইনে ক্যাশ-অন ডেলিভারি অথবা বিভিন্ন অপশনে মূল্য পরিশোধ করে পত্রিকাটি অর্ডার করলে কর্তৃপক্ষ তা পাঠানোর ব্যবস্থা করে থাকেন।

২০ ফর্মায় ছাপা অনুপ্রাণন'এর এই সংখ্যাটির মূল্য হচ্ছে ১৫০ টাকা।

আপনার মন্তব্য